ইবিতে চাকরির দাবি স্থানীয়সহ সাবেক ছাত্রলীগকর্মীদের!

0
394

 

ইবি প্রতিনিধি,
চাকরির দাবিতে ফের আন্দোলনে নেমেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মরত স্থানীয় লোকজনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এনিয়ে শনিবার (১৫ জানুয়ারি) উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান করে তারা। তবে নিয়মানুযায়ী ইউজিসির অনুমোদন ছাড়া লোকবল নেয়া হবেনা বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরির দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন দপ্তর, বিভাগ ও আবাসিক হলে দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মরত স্থানীয় লোকজনসহ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক কিছু নেতাকর্মী। গত বছর করোনায় ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় কোন মজুরি পাননি তারা৷ পরবর্তীতে ক্যাম্পাস খুললে নতুনভাবে বিভিন্ন দপ্তরে ৯৪ জনকে দৈনিক মজুরিভিত্তিক কাজ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে ৩১ জন পূর্বের ও বাকিরা নতুন বলে জানিয়েছেন বঞ্চিতরা। ফলে তাদের মধ্যে বাদপড়া লোকজনেরা চাকরির দাবি তুলেন। এনিয়ে শনিবার উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান করে তারা। কয়েক ঘন্টা অবস্থানের পরে তাদের একটি দল উপাচার্যের সাথে দেখা করেন।

এদিকে এরআগেও চাকরির দাবিতে একাধিকবার আন্দোলন ও অবরোধ করে তারা৷ পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ও সাবেক ছাত্রলীগকর্মীর পরিচয়ে চাকরির দাবিতে অগ্রাধিকার চান তারা।

দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মরতদের নেতা টিটু মিজান বলেন, আমাদের প্রশাসনিকভাবে অনুমোদন আছে। যা সিন্ডিকেটেও অনুমোদন দেওয়া আছে। কিন্তু উপাচার্য তা মানছেন না। নতুন করে অনেককে কাজ করানো হচ্ছে। এতে বুঝা যায় যে তারা এদের কাছে টাকা নিয়েছেন। আমাদের কাছে টাকা পাচ্ছে না সে জন্য আমাদের কাজ দিচ্ছেন না৷

এবিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম বলেন, কিছু লোক নিয়ম বহির্ভূতভাবে চাকরির দাবি জানিয়েছে। এদের কাজ করানোর জন্য ইউজিসির কোন বরাদ্দ নেই। ইউজিসি অনুমোদন দিলে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর তারা যদি শর্তসমূহ পূর্ণ করতে পারে তাহলে তাদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here