১১ দিন চালু ॥ অতপর বন্ধ ‘ম্যাংগো ষ্পেশাল ট্রেন’

0
103
Exif_JPEG_420

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ তৃতীয়বারের মত চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকা রুটে আনুষ্ঠানিকভাবে গত ১৩ জুন উদ্বোধন হওয়া ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’ টি বন্ধ হয়ে গেছে। মাত্র ১১দিন চলার পরই ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’ টি বন্ধের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে সূত্র নিশ্চিত করেছে।

গত বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) শেষবারের মত চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আম নিয়ে ঢাকা যায় ট্রেনটি। সংশ্লিস্ট সূত্রে জানা গেছে, বড় ধরণের লোকসানের কারণেই ট্রেনটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ৫টি ৪৩ টনের মালবাহী ওয়াগনের ট্রেনটির আয়ের তুলনায় অনেক বেশী খরচ হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

রহনপুর রেলস্টেশন সহকারী স্টেশন মাষ্টার আল মামুন বলেন, ‘আমাদের কন্ট্রোল অর্ডারে বলা হয়েছে ২৪ জুন থেকে আর ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেনে আর আম পরিবহন করা হবে না। সর্বশেষ ২৩ জুন এ স্টেশন থেকে ৩ হাজার ১৮৫ কেজি আম পরিবহন করা হয়।

আর রেল স্টেশন থেকে মোট ২৯ হাজার ৫৪৩ কেজি আম পরিবহন করা হয়। এখান থেকে রাজস্ব আয়
হয়েছে ৩৮ হাজার ৯৬১ টাকা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন সুত্রে জানা গেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে ৪৫ হাজার ৬২৪ কেজি আম পরিবহন করে ম্যাংগো ট্রেন। এখান থেকে আয় হয় ৬১ হাজার ৪৬৯ টাকা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেনের সহকারী স্টেশন মাস্টার ওবাইদুল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, ‘তৃতীয় বারের মতো ১৩ জুন চাঁপাইনবাবগঞ্জের রেলস্টেশন থেকে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেনের যাত্রা শুরু হয়। সর্বশেষ ২৩ জুন এ ট্রেনটি আম পরিবহন করে। ২৪ জুন থেকে এ ট্রেনটি আর চলবেনা বলে আমাদের জানানো হয়।’

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলা থেকে যাত্রা শুরু করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরসহ জেলার ৬টি সহ রাজশাহী হয়ে ট্রেনটি ঢাকার কমলাপুর ষ্টেশন পর্যন্ত ১৬টি ষ্টেশন থেকে মাল পরিবহন করত।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের যে কোন ষ্টেশন থেকে ঢাকা পর্যন্ত তিনটি মৌসুমেই কেজি প্রতি ভাড়া নির্ধারণ হয় ১টাকা ৩১ পয়সা। রাজশাহী থেকে ঢাকা পর্যন্ত কেজি প্রতি ভাড়া হয় ১ টাকা ১৮ পয়সা।

জেলার বৃহত্তম সদর উপজেলার আমনুরা জংশন মাষ্টার হাসিবুল হাসান বলেন, ট্রেনটি এ বছর ১৮২টি ক্যারেটে ৩.৭৭৪ টন আম পরিবহন করে আয় করে ৪ হাজার ৬৫৬ টাকা।

সংশ্লিস্টরা বলছেন, এবার আমের রাজ্য চাঁপাইনবাবগঞ্জে রেকর্ড পরিমান উৎপাদন বিপর্যয় ঘটেছে। ট্রেনটি মৌসুমের অন্তত: ৩ সপ্তাহ দেরী করে চালু করা হয়েছিল। অপরদিকে, রাজশাহী অঞ্চলে আমের ফলন তুলনামূলক ভাল হলেও সেখান থেকে ট্রেনের জন্য তেমন সাড়া পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here