কাচিকাটায় দুই বাড়িতে ডাকাতি নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট আহত ১০

0
129

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ॥ শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার কাচিকাটাঁ ইউনিয়নের মান্দারতলী গ্রামে দুই বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাত দল নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার সহ প্রায় ৮ লাক্ষাধিক টাকার মালামাল ডাকাতি করে নিয়ে স্পীড বোর্ড যোগে পালিয়ে যায়। ডাকাতের ছোরা গুলি ও হামলায় প্রায় ১০ জন আহত হয়েছে বলে জানাগেছে। সখিপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছে।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার দিবাগত রাত ২টার দিকে সশস্ত্র মুখোশধারী ১০-১৫ জনের একটি ডাকাত দল ইস্পিট বোর্ড যোগে মান্দার তলী গ্রামের নুরুল হক বেপারী ও আমির বকাউলের বাড়িতে গিয়ে ঘরের দর্জা ভেঙ্গে ডাকাতি করে। স্থানীয়রা ডাকাত বলে চিৎকার করলে ডাকাত দল স্থানীয়দের মারধর করে এবং গুলি ছুরতে ছুরতে স্পীড বোর্ড যোগে পালিয়ে যায়। ডাকাতদের ছোরা গুলিতে নুরুল হক বেপারী ছেলে সোহেল বেপারী আহত হয়। ডাকাতদের মারধরে এলাকার আরো ১০ জন আহত হয়। গুলিবিদ্ধ সোহেল সহ আহতদের চাঁদপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নুরুল হক বেপারী জানায়, ডাকাতরা তার আলু বিক্রির নগদ টাকা ১ লাখ, স্বর্ণালংকার ১৪ ভরি, রুপার অলংকার, মোবাইল ফোন ও টিভি নিয়ে গেছে । কাচিকাটা ইউনিয়নের মান্দারতলী গ্রাম একটি দ্বীপের মতো তাই এখানে নিরাপত্তার কোন ব্যবস্থা নাই। ডাকাতদল সহজেই তাদের তান্ডবলীলা চালাতে পারে। এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করে ডাকাতি করে ডাকাতরা। মূল্যবান জিনিসপত্র সহ গরু বাছুর ডাকাতি হয় এ এলাকায়। নদীতে পুলিশের টহল ও ইউনিয়ন পরিষদের চৌকিদারগন দায়িত্ববান হলে এলাকাবাসরি সহায়তায় ডাকাতদল প্রতিহত করা সম্ভব।

সখিপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মঞ্জুরুল ইসলাম আকন বলেন, সীবোর্ড যোগে এসে ১০-১৫ জনের ডাকাত দল ডাকাতি করেছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।