খুব কাছে গিয়েও পারলেন না শিরিন

0
71

আরেকবার পদকের খুব কাছে গিয়েও হতাশ হতে হয়েছে বাংলাদেশকে। কিন্তু এবার শ্যুটিং নয়। পদকের সম্ভাবনা জেগেছিল কুস্তিতে। গতকাল কারারা স্পোর্টস অ্যান্ড লেজার সেন্টারে সেমিফাইনালে উঠে সেই সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন শিরিন সুলতানা। কিন্তু ভাগ্য সহায় হয়নি তাঁর।

গেমসের নিয়ম অনুযায়ী সেমিফাইনালের দুই বিজিতই পান ব্রোঞ্জ মেডেল। কিন্তু মেয়েদের ৪৮ কেজি ওজন শ্রেণিতে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা আটজনের কম হওয়ায় শিরিনকে খেলতে হয়েছে ব্রোঞ্জ মেডেল নিষ্পত্তির ম্যাচে। যেখানে মাত্র ২০ সেকেন্ডেই তিনি হার মেনেছেন ভারতের দিব্যা কাকরানের কাছে। কমনওয়েলথ পদক অধরাই থেকে যাচ্ছে বাংলাদেশের মেয়েদের কাছে। চার দিন আগে ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে ব্রোঞ্জ পদকের খুব কাছাকাছি গিয়েও পারেননি শ্যুটিং স্টার উম্মে জাকিয়া সুলতানা। আর গতকাল তারই পথ অনুসরণ করলেন শিরিন।

সকালে শুরুটা ভালোই করেছিলেন গত বছর ইসলামিক সলিডারিটি গেমসে ব্রোঞ্জ পদকজয়ী শিরিন। প্রথম ম্যাচে কেনিয়ার লিলিয়ান থিগাকে কুপোকাত করতে খুব বেশি বেগ পেতে হয়নি তাঁকে। কিন্তু গ্রুপের পরের ম্যাচেই তিনি হেরে যান নাইজেরিয়ার ব্লেসিং ওবরোদুদুর কাছে। এই হারে অবশ্য সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে সমস্যা হয়নি শিরিনের। প্রথম ম্যাচে জয়ের সুবাদে পেয়ে যান সেরা চারে জায়গা। কিন্তু কানাডার দানিয়েল লাপ্পাজের বিরুদ্ধে কোনো প্রতিরোধই গড়তে পারেননি তিনি।

শিরিন অবশ্য প্রথম বাঙালি কুস্তিগির হিসেবে কমনওয়েলথ গেমসে খেলতে এসে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করাটাকে বড় করেই দেখছেন, ‘সম্ভাবনা ছিল পদক জয়ের; কিন্তু ভারতের শক্তিশালী প্রতিপক্ষের সঙ্গে টেকনিকে পেরে উঠিনি। শক্তিতে ভারতীয়রা খুব বেশি এগিয়ে না থাকলেও টেকনিকে তারা অনেকটাই এগিয়ে আমাদের চেয়ে। কারণ তারা বছরজুড়ে অনুশীলনের মধ্যে থাকে। আর আমরা এখানে এসেছি মাত্র চার মাসের প্রশিক্ষণ নিয়ে।’ এই চার মাসেও অনেক প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হতে হয়েছে তাঁকে, ‘ক্রীড়া পরিষদের যে জিমনেসিয়ামে আমরা অনুশীলন করি সেখানে আরো দু-তিনটি খেলার ক্রীড়াবিদরা অনুশীলন করে। ফলে প্রায়ই আমাদের জায়গা সংকটে পড়তে হয়েছে। এর বাইরে সুযোগ-সুবিধার কথা না হয় বাদই দিলাম।’

শিরিনের দাবি আন্তর্জঅতিক অঙ্গনে সাফল্য পেতে হলে আরো বেশি সময় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে নইলে এ আসা-যাওয়ার আনুষ্ঠানিকতার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে, ‘বিদেশি কোচ না হোক, অন্তত দেশি কোচের তত্ত্বাবধানে দীর্ঘমেয়াদি প্রশিক্ষণ পেলে আমাদের পক্ষেও এ রকম আসরে পদক জেতা সম্ভব। ভারতীয়রা অনেক বেশি খেলার সুযোগ পায়, সেই কারণে তাদের টেকনিকেরও উন্নতি হয়েছে। তা ছাড়া যাদের সঙ্গে খেললাম তারা প্রত্যেকেই বেশ কিছুদিন আগে এখানে এসেছে। ফলে পরিবেশ এবং সময়ের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পেরেছে, যেটা আমরা পারিনি। এসেই নেমে পড়তে হয়েছে লড়াইয়ে। এর পরও প্রথম কোনো মেয়ে হিসেবে সেমিফাইনালে যাওয়ায় আমি খুশি।’

এদিকে ব্রিজবেনের বেলমন্ট শ্যুটিং রেঞ্জে আবারও ব্যর্থ হয়েছেন দুই মেয়ে রাইফেল শ্যুটিং স্টার শারমিন শিল্পা ও সুরাইয়া আক্তার। মেয়েদের ৫০ মিটার রাইফেল থ্রি-পজিশন ইভেন্টে শিল্পা ও সুরাইয়া শেষ করেছেন যথাক্রমে ১২ ও ১৩তম স্থানে। দুজনের স্কোরই সমান ৫৭০ হলেও শিল্পা বেশিসংখ্যকবার ১০ অথবা এর চেয়ে বেশি স্কোর গড়ে এগিয়ে থেকেছেন সুরাইয়ার চেয়ে। যদিও এ স্কোর মোটেই যথেষ্ট ছিল না সেরা আটে নাম লেখাতে। আজ শেষ হয়ে যাবে বাংলাদেশের কমনওয়েলথ গেমস। শেষ দিনে ছেলেদের ৫০ মিটার রাইফেল থ্রি-পজিশন ইভেন্টে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করবেন শোভন চৌধুরী। এই ইভেন্টে খেলার কথা ছিল আসরে দেশের হয়ে প্রথম রৌপ্যজয়ী আব্দুল্লাহ হেল বাকীর। কিন্তু ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে সাফল্য আসায় এবং প্র্যাকটিসের ঘাটতির কারণে এই ইভেন্টে বাকীকে খেলাতে চান না ড্যানিশ কোচ ক্লাভস ক্রিস্টেনসেন।

দুই শ্যুটিং স্টারের এনে দেওয়া দুই রৌপ্যপদকের সুবাদে গেমসের দশম দিন শেষে পয়েন্ট টেবিলে বাংলাদেশের অবস্থান এখন ২৬তম। পদক তালিকায় ৬৫টি স্বর্ণপদক নিয়ে যথারীতি শীর্ষে রয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইংল্যান্ডের এখন পর্যন্ত প্রাপ্তি ৩০টি স্বর্ণপদক। আর ভারত তৃতীয় স্থানে আছে ১৭টি স্বর্ণপদক নিয়ে।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here