নারায়ণগঞ্জ বন্দরে চায়না হত্যা মামলার সন্দেহে নারীসহ আটক-২

0
128

নারায়ণগঞ্জ বন্দর প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ বন্দরে সালাউদ্দিন ওরফে চায়না হত্যা মামলার সন্দেহে এক নারীসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে বন্দর থানার ঘারমোড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে এদেরকে আটক করা হয়। যার মামলা নং- ৪৮(২)১৮। আটককৃত সন্দেহ ভাজনরা হলো ঘারমোড়া এলাকার মৃত রশিদ সরদারের ছেলে নুরুল হুদা (৪২) ও দক্ষিন ঘারমোড়া এলাকার আশরাফ উদ্দিন মিয়ার স্ত্রী শ্যামলী বেগম (৪০)।

জানা গেছে, গত ১৯ ফেব্রুয়ারী রাতে যে কোন সময় বন্দর থানার ঘারমোড়া এলাকার মৃত শাহাবুদ্দিন সরদারের ছেলে সালাউদ্দিন ওরফে চায়না (৪৫)কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে অজ্ঞাত খুনিরা। পরে ২০ ফেব্রুয়ারী সকালে এলাকাবাসীর সংবাদের প্রেক্ষিতে বন্দর থানা পুলিশ চরঘারমোড়াস্থ হাজী মহিউদ্দিন মিয়ার রাইস মিলের পশ্চিম পাশের সরকারি খাল থেকে চায়নার লাশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে নিহত চায়নার স্ত্রী জিয়াসমিন বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাত নামা আসামী করে বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ছাড়াও চায়না হত্যাকান্ডের সন্দেহে সম্প্রতি সময়ে বন্দর থানা পুলিশ সৈয়াল বাড়ী ঘাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে একই এলাকার আদু মিয়ার ছেলে ক্যাপ রোমান (৩৫)কে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করেছে।

থানা সূত্রে জানা গেছে, চায়না হত্যা মামলার সুষ্ঠ তদন্ত স্বার্থে নিহত চায়নার জেঠাত ভাই নূরুল হুদা ও চায়নার পরকিয়া প্রেমিকা শ্যামলী বেগমকে আটক করা হয়েছে। আটকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে তাদের শুক্রবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।