বিদেশে বাংলাদেশিদের দুর্নামের একটি বড় কারণ রোহিঙ্গারা-প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

0
85

বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে এ পর্যন্ত দুই থেকে আড়াই লাখ রোহিঙ্গা বিদেশে গেছেন বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি। তিনি বলেন, বিদেশে নানা অপরাধে জড়িয়ে বাংলাদেশের সুনাম নষ্ট করছে তারা। শনিবার রাজধানীর একটি হোটেলে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ওয়ার্ল্ড সামিট সিরিজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন মন্ত্রী। অনুষ্ঠানে প্রবাসীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে নানা ধরনের জটিলতা নিরসনে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. হোসেন জিল্লুর রহমান, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, এম এস শেকিল চৌধুরী বক্তব্য দেন।

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মরত রয়েছে অন্তত সোয়া কোটি বাংলাদেশি, যাদের পাঠানো অর্থে গতিশীল হচ্ছে দেশের অর্থনীতির চাকা। বিদেশে বাংলাদেশিদের সুনাম যেমন রয়েছে তেমনি কিছুটা দুর্নামেরও ভাগিদার হচ্ছে বাংলাদেশ। প্রবাসীদের নিয়ে আয়োজিত এই সামিটে মন্ত্রী জানান, এই দুর্নামের একটি বড় কারণ রোহিঙ্গারা।

রোহিঙ্গাদের প্রসঙ্গে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের এ দেশে এনে জাতীয় পরিচয়পত্র কে দিয়েছে? জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে তারা পাসপোর্ট তৈরি করে বিদেশে যাচ্ছে। এ সুযোগ কে করে দিয়েছে? গ্রাউন্ড লেভেলে এটা আমরাই করে দিয়েছি। প্রবণতা অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। এটা চলতে দেওয়া যায় না।’

হোসেন জিল্লুর বলেন, ‘প্রবাসীদের আয় দিয়ে আমাদের জাতীয় প্রবৃদ্ধির চাকা সচল হচ্ছে। বাংলাদেশ অর্থনৈতিক দিকে দিয়ে নতুন অধ্যায়ে প্রবেশ করছে। এ অবস্থায় প্রবাসীদের গুরুত্ব দিতে হবে।

এফবিসিসিআই সভাপতি মহিউদ্দিন ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘বাংলাদেশে ইন্ড্রাস্ট্রি গড়ে উঠছে। এ অবস্থায় আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে আমরা বিদেশে ৫০ ডিগ্রি তাপমাত্রার রডের কারখানায় লোক পাঠাব নাকি তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দেশের কারখানায় নিয়োজিত করব। আর যদি বিদেশে পাঠাতেই হয় তাহলে অদক্ষ শ্রমিক না পাঠিয়ে অবশ্যই তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে পাঠাতে হবে।