সিলেট হবে দেশের প্রথম ডিজিটাল নগরী: সিলেটে মোস্তফা জব্বার

0
93

সিলেট প্রতিনিধি: ডাক,টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন সিলেট হবে দেশের প্রথম ডিজিটাল নগরী। সিলেটের সবুজ, সিলেটের হাওর আর সিলেটের নৈসর্গিক সৌন্দর্য সব মিলিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশের সম্পূর্ণ ডিজিটাল নগরী হবে সিলেট। শুক্রবার (২৭ এপ্রিল) রাতে নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি, সিলেট শাখার আয়োজনে এক সংবর্ধনা সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি সিলেট শাখার চেয়ারম্যান এনামুল কুদ্দুস চৌধুরীর স্বাগত বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে শুরু হওয়া সভায় মন্ত্রী আরো বলেন, সিলেটের কোম্পানিগঞ্জে হাইটেক পার্কের কাজ চলমান যা আগামী জুন মাস নাগাদ দৃশ্যমান হবে। যা সিলেটের জন্য গর্বের। সিলেটের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর হাওর-বাওর, নদীর তীরে স্থাপিত এই হাইটেক পার্ক হবে দেশের প্রযুক্তিখাতে এগিয়ে যাবার একটি অন্যতম নিদর্শন।

মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবার পর অনেক চ্যালেঞ্জ সামনে এসেছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, চতুর্থ প্রজন্মের নেটওয়ার্ক স্থাপন (ফোরজি) ছিলো আমার জন্য সবচে বড় চ্যালেঞ্জ, কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আর অর্থমন্ত্রীসহ সকলের সহযোগিতায় সেই চ্যালেঞ্জ পেরিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছি। এখন সামনে আরো একটি চ্যালেঞ্জ হলো বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপন, তাও আগামী ৭ই মে সফলভাবে সম্পন্ন বলে আশা করা যায়। আগামী আগষ্ট থেকেই এর সুফল পাওয়া যাবে বলে আশা করেন মোস্তফা জব্বার।

প্রযুক্তিখাতে বাংলাদেশের বর্তমান অগ্রগতি উল্লেখ করতে গিয়ে মন্ত্রী বলেন, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে দেশের সবকটি ইউনিয়ন ইন্টারনেট কানেক্টিভিটির আওতায় আসবে আর ২০২১ এর মধ্যে দেশের প্রত্যেকটি বাড়ি থাকবে কানেক্টিভিটির আওতাও। এখন স্মার্টফোন ও কম্পিউটারসহ বিভিন্ন রকম যন্ত্রাংশ দেশেই প্রস্তুত হচ্ছে। নেপাল, নাইজেরিয়া ও পূর্ব তিমুরে আমাদের দেশে তৈরি কম্পিউটার ও স্মার্টফোন রপ্তানি হচ্ছে। এখন আমাদের সোনালী সময়। বিশ্বের অন্যতম সেরা মোবাইল ফোন নির্মাতা কোম্পানি স্যামসাং শীঘ্রই বাংলাদেশে তাদের কারখানায় মোবাইল ফোন ও যন্ত্রাংশ উৎপাদন শুরু করবে। এতে বাংলাদেশ হতে পারে আগামী দিনের তথ্য প্রযুক্তি খাতে অন্যতম বড় রপ্তানিকারক দেশ।

দেশের প্রযুক্তিখাত আরো সম্প্রসারিত করতে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মোস্তফা জব্বার বলেন, আগে আপনারা বিদেশী কোম্পানির রিটেলার হয়ে কমিশন নিয়ে ব্যবসা করেছেন, এখন সেখান থেকে সরে আসার সময় হয়েছে। এখন থেকে দেশি কোম্পানির তৈরি কম্পিউটার বিক্রি করতে হবে, তাহলেই আমাদের ইন্ডাস্ট্রি দাঁড়াবে। সরকার এখাতে সর্বোচ্চ বিনিয়োগ করছে, প্রায় ১২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে এ খাতের শিল্প বিকাশে। এই বরাদ্দের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারলে আমরা সত্যিকার অর্থে ডিজিটাল বাংলাদেশ তৈরি করতে পারবো।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, মহাসচিব মোশাররফ হোসেন সুমন, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী,সিলেট চেম্বারের পরিচালক মুকির হোসেন চৌধুরী, সিলেট উইমেন্স চেম্বারের সভাপতি স্বর্ণলতা রায় প্রমুখ।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আব্দুল হান্নান, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ, বাংলাটিভির ব্যুরো চিফ আবু তালেব মুরাদ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক এম সাইফুর রহমান তালুকদার, সাংবাদিক সামির মাহমুদ, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি সিলেট শাখার সেক্রেটারী এ এস এম জি কিবরিয়া,সদস্য মুজিবুর রহমান, সাংবাদিক এম. রহমান ফারুক, ফাহাদ মারুফ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here