রাজস্থান রয়্যালসকে ৬ উইকেটে পরাজিত করল কিংস ইলেভেন পঞ্জাব

0
73

রাজস্থান রয়্যালসকে ৬ উইকেটে পরাজিত করল কিংস ইলেভেন পঞ্জাব৷ জয়ের লক্ষ্য বড়সড় না হলেও শুরুতেই পর পর উইকেট হারিয়ে বসায় অশ্বিনদের কাজ কঠিন হয়ে দাঁড়ায়৷ করুণ নায়ার ও মার্কাস স্টোইনিসকে সঙ্গে নিয়ে শেষমেশ দলকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছে দেন রাহুল৷

টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে রাজস্থান নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান তোলে৷ পাওয়ার প্লে-র মধ্যে এক জোড়া উইকেট হারিয়ে শুরুতেই চাপে পড়ে যায় রাজস্থান৷ ইনিংসের প্রথম ওভারেই ডার্সি শর্টকে ফেরত পাঠান পঞ্জাব অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন৷ মাত্র ২ রান করে অ্যান্ড্রু তাইয়ের হাতে ধরা দেন শর্ট৷ চতুর্থ ওভারের মাথায় রয়্যালস ক্যাপ্টেন রাহানেকে আউট করেন অক্ষর প্যাটেল৷ ব্যক্তিগত ৫ রানের মাথায় গেইলের হাতে জীবন সঁপে দেন অজিঙ্কা৷

সঞ্জু স্যামসনকে সঙ্গে নিয়ে প্রাথমিক ব্যাটিং বিপর্যয় রোধ করেন জোস বাটলার৷ তৃতীয় উইকেটের জুটিতে দু’জনে যোগ করেন ৪৯ রান৷ শেষে ২৩ বলে ২৮ রান করে তাইয়ের বলে করুণ নায়ারকে ক্যাচ দিয়ে বসেন স্যামসন৷ আউট হওয়ার আগে দু’টি চার ও একটি ছক্কা মারেন সঞ্জু৷

বেন স্টোকস ১২ রান করে মুজিব উর রহমানের বলে আউট হন৷ বাউন্ডারি লাইনে স্টোকসের ’রিলে ক্যাচ’ ধরেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল ও মনোজ তিওয়ারি৷ প্রথমে বল তালুবন্দি করেন মায়াঙ্ক৷ তবে বাউন্ডারি টপকে যাওয়ার ঠিক আগের মুহূর্তে তিনি বল ছুঁড়ে দেন মনোজের দিকে৷ বল ধরতে কোনও ভুল করেননি বাংলা অধিনায়ক৷

বাটলার ব্যক্তিগত অর্ধশতরানের গণ্ডি টপকানোর পর মুজিবের বলেই উইকেটকিপার লোকেশ রাহুলের দস্তানায় পড়ে যান৷ ৭টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৩৯ বলে ৫১ রান করে সাজঘরের পথে হাঁটা লাগান ব্রিটিশ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান৷ ঠিক পরের বলেই সদ্য ক্রিজে আসা জোফ্রা আর্চারের স্ট্যাম্প ছিটকে দেন মুজিব৷

কৃষ্ণাপ্পা গৌতম ৫ রান করে অঙ্কিত রাজপুতের বলে স্টোইনিসকে ক্যাচ দিয়ে বসেন৷ রাহুল ত্রিপাঠী ১১ রান করে অ্যান্ড্রু তাইয়ের দ্বিতীয় শিকার হন৷ শেষ দিকে ১৬ বলে ২৪ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলে রানআউট হন শ্রেয়স গোপাল৷ উনাদকাট নটআউট থাকেন ৬ রান করে৷

পঞ্জাবের হয়ে ২৭ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নেন মুজিব৷ ২৪ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন তাই৷ একটি করে উইকেট পেয়েছেন অশ্বিন, রাজপুত ও অক্ষর প্যাটেল৷

পালটা ব্যাট করতে নেমে পঞ্জাবও ২৯ রানের মধ্যে ক্রিস গেইল ও মায়াঙ্ক আগরওয়ালের গুরুত্বপূর্ণ দু’টি উইকেট হারিয়ে বসে৷ গেইল ১১ বলে ৮ রান করে জোফ্রা আর্চারের বলে স্যামসনের হাতে ধরা পড়েন৷ আগরওয়াল ২ রান করে স্টোইনিসের বলে ত্রিপাঠীকে ক্যাচ দিয়ে ক্রিজ ছাড়েন৷

করুণ নায়ারকে সঙ্গে নিয়ে তৃতীয় উইকেটের জুটিতে ৫০ রান যোগ করেন রাহুল৷ নায়ার ২৩ বলে ৩১ রান করে অনুরীতের বলে বোল্ড হন৷ অক্ষর প্যাটের মাত্র ৪ রান করে গৌতমের শিকার হন৷ পঞ্জাব ৮৭ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায়৷ সেখান থেকে মাথা ঠাণ্ডা রেখে দলকে জয়ের মঞ্চে প্রতিষ্ঠিত করেন লোকেশ রাহুল৷ তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করেন স্টোইনিস৷

শেষ পর্যন্ত ৫৪ রানে ৮৪ রান করে অপরাজিত থাকেন রাহুল৷ তিনি সাতটি চার ও তিনটি ছক্কা মারেন৷ স্টোইনিস নটআউট থাকেন ১৬ বলে ২৩ রান করে৷ তিনি মেরেছেন দু’টি চার ও একটি ছক্কা৷ পঞ্জাব ১৮.৪ ওভারে ৪ উইকেটে ১৫৫ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়৷ রাজস্থানের হয়ে একটি করে উইকেট পেয়েছেন গৌতম, অর্চার, স্টোকস ও অনুরীত৷

এই জয়ের সুবাদে পঞ্জাব ৯ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠে আসে পঞ্জাব৷ তারা পিছনে ফেল দেয় কলকাতা নাইট রাইডার্সকে৷ লোকেশ রাহুল অনবদ্য ব্যাটিং করলেও তিন উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা হয়েছেন মুজিব উর রহমান৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here