বালিয়াডাঙ্গার প্রবাসির স্ত্রীর ঘরে ঢুকে শাহাজান ধরা !

0
203

ঝিনাইদহ সংবাদাতাঃ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে এবার মালয়েশিয়া প্রবাসি আফাল উদ্দীনের স্ত্রীর ঘরে উঠে ধরা পড়ে জরিমানা গুনতে হয়েছে স্থানীয় বেকারী ব্যবসায়ী শাহাজান আলী। গ্রামবাসি লম্পট শাহাজানকে আটক করে জনপ্রতিনিধিদের সোপর্দ করলে তারা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে রফা করে। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা গেছে বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের বিল্লাাল হোসেনের ছেলে আফাল উদ্দিন দীর্ঘদিন বিদেশ থাকেন। এই সুযোগে তার স্ত্রী এক সন্তানের জননী নাজমা খাতুন একই এলাকার মজু মিয়ার ছেলে বেকারির মালিক শাহাজান আলীর সাথে পরোকিয়ায় লিপ্ত হয়। শুক্রবার গভীর রাতে গ্রামবাসি তাদের আপত্তিকর অবস্থায় ধরে ফেলে। পরে ৭০ হাজার টাকার রফা করেন স্থানীয় মেম্বর আনোয়ার হোসেন।

গ্রামবাসি জানায় আফাল উদ্দিনের সাথে ৮ বছর আগে কালীগঞ্জ পৌরভসাধীন চাপালি শ্রীরামপুর গ্রামের সদর উদ্দিনের মেয়ে নাজমা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের কোল জুড়ে আসে আনিসা (৪) নামে এক কন্যা সন্তান। অভাব অনাটনের সংসারে বেকারিতে কাজ করতো আফাল উদ্দিন। আর এদিকে গত ৫ বছর যাবৎ বেকারি মালিক শাহজান আলী আফাল উদ্দিনের সুন্দরী স্ত্রীকে নিয়ে লালসায় মেতে উঠতো।

অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রতিবেশী আঃ সালাম ওরফে সালে আহম্মদ ১০ দিন ধরে পাহারা বসিয়ে তাদের ধরে ফেলে। জানাজানি হওয়ার আগেই রাতে ৭০ হাজার টাকায় এই ঘটনা ধামাচাপা দেওয়া হয়।

তবে এলাকায় শাহজান ও নাজমার এই পরোকিয়ার ঘটনাটি মানুষের মুখে মুখে। বাজার ঘাট ও চায়ের দোকানে ছি ছি রব পড়ে গেছে। বিষয়টি নিয়ে আব্দুস সালাম ওরফে সালে আহম্মদের ০১৭২০-১৪২৬৪৩ নাম্বার মোবাইলে কথা হলে তিনি প্রথমে ঘটনা স্বীকার করেন। পরে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে লাইন কেটে দেন। বিষয়টি জানতে বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের ইউপি মেম্বর আনোয়ার হোসেনের কাছে ফোন করা হলে তিনি ফোন ধরেন নি।