চাঁদপুরে নিজ বাসায় খুন কেন্দ্রীয় মহিলা লীগ নেত্রী

0
229

চাঁদপুর শহরের ষোলঘর এলাকার নিজ বাসায় কেন্দ্রীয় মহিলা লীগের সদস্য অধ্যক্ষ শাহিন সুলতানা ফেন্সীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ শহরের পাকা বাড়ি এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পিপি অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলামকে আটক করেছে।

জানা গেছে, ফেন্সীর স্বামী আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম কয়েক বছর আগে আরেকটি বিয়ে করেছেন। তা নিয়ে পরিবারের মধ্যে দ্বন্দ্ব ছিল। তবে ফেন্সীর স্বামী জহিরুল ইসলাম পুলিশকে জানিয়েছেন, ওই সময় তিনি বাসায় ছিলেন না,  বাসায় এসে তিনি রুমের দরজা খোলা দেখতে পান আর রুমের মেঝেতে তার স্ত্রীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তার চিৎকারে লোকজন ছুটে আসে।

জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান জানান, ইতিমধ্যে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে, প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামী জহিরুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পিপি অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম ও কেন্দ্রীয় মহিলা লীগের সদস্য অধ্যক্ষ শাহিন সুলতানা ফেন্সীর দাম্পত্য জীবন ২০ বছরেরও বেশি। তাদের তিন মেয়ের মধ্যে দুজন দেশের বাইরে আরেকজন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে পড়ছে। চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের গল্লাক আদর্শ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ছিলেন শাহিন সুলতানা ফেন্সী।

বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের চাঁদপুর জেলা শাখার প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক হিসেবে ১৯৯১ থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত জাতীয় মহিলা সংস্থা চাঁদপুরের চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ