কানসাটে আম বাজারে শুরুতেই তীব্র যানজট ॥ ভোগান্তিতে পথচারিরা

0
15

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু ॥ আন্তর্জাতিক খ্যাত কানসাট বাজারে আম আসতে শুরু করেছে। বাজারে আম আসতে না আসতেই চাঁপাইনবাবগঞ্জ-সোনামসজিদ মহাসড়কের কানসাটে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। আর এই যানজট নিয়ে উদ্বেগ উৎকন্ঠায় এবং ভোগান্তিতে পথচারিরা। যানজটের কারণে সময়মত পথচারিরা নিজস্ব গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছেন না। ফলে প্রচন্ড তাপদহে রাস্তার উপরে দাঁড়িয়ে সময় কাটাচ্ছেন। স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা ঈদের আগাম ছুটি হলেও বিভিন্ন ব্যাংক, অফিস আদালতের কর্মজীবীরা আটকে পড়ছে কানসাটের এই যানজটের মধ্যে।

এছাড়া ঈদকে সামনে রেখে কানসাট বাজারে ঈদের কেনা-কাটা করতে আসা সাধারণ মানুষও পড়ছেন বিপাকে। অন্যদিকে, বরাবরের মতোই বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীদের হাসপাতালে নিতেও বিলম্ব হচ্ছে। ফলে সাধারণ পথচারি থেকে শুরু করে রোগিরা পর্যন্ত জিম্মি এই যানজটে। এবছর বাজারে আম কেনা-বেচা শুরু হতে না হতেই যদি এমন যানজট হয়, তাহলে পুরো আম মৌসুুম কি পরিণতি হবে এই নিয়ে উদ্বিগ্ন পথচারিরা।

যানজটের আটকে পড়া পথচারিরা বলেন, প্রতিবছর এই যানজটের মধ্যে পড়তে হয় আমাদের। রাস্তার উপরে প্রায় ২/৩ ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। খালি পায়ে তো হাটা যাই না, আর কিভাবে যানবহনে যাতায়াত করবো সেই চিন্তা করে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকি পুতুলের মত। শুধু কি তাই? সাধারণ সুস্থ মানুষ পথের মাঝে অপেক্ষা করতে যে কষ্ট হয় তাতে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। আর অসুস্থ ব্যক্তির ক্ষেত্রে কি হবে তা বলার ভাষা নাই আমাদের। পথচারিরা বলেন, প্রতিবছর আম বোঝাই ভ্যান রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে বেচা-কেনা ও যত্রছত্র ব্যাটারি চালিক অটো রিক্সা দাঁড়ানো কারণেই এই যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। যেনো কেউ দেখার নেই।

এদিকে, যানজট নিরসনের বিষয়ে কানসাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. বেনাউল ইসলাম জানান, আম মৌসুম শুরু হলেই কানসাটে যানজট শুরু হয়। কিন্তু আমার ইউনিয়ন পরিষদের সাধ্যমত চেষ্টা করি সাধারণ পথচারিদের হয়রানি থেকে মুক্ত করার।

এবছরও আমি সাধ্যমত চেষ্টা করবো কানসাটের যানজট নিরসন করার। এব্যাপারে আম বাজারের ইজারাদার মো. আমিনুল ইসলাম জানান, বাজারে এখনো ভালোভাবে আম আসতে লাগেনি। সবেমাত্র আম বাজারে আসতে শুরু করেছে। বরাবরের মত আমরা হাট ইজারাদারের পক্ষে থেকে প্রতি বছরের মত যানজট নিরসনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। নির্দিষ্ট আম বাজারে আম বিক্রয় হবে।

রাস্তার দু’পাশে কোন প্রকার আম বোঝাই যানবাহন দাঁড়াতে দেয়া হবে না। এই নিয়ে আমাদের মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। শুধু তাই নয়, কানসাটের ৪টি মোড়ে যানজট মুক্ত রাখতে আনসার-ভিডিপি নিয়োগ দেয়া হবে কয়েকদিনের মধ্যে। এদিকে, শিবগঞ্জ থানার ওসি (অপারেশন) মো. কবির হোসেন জানান, কানসাটের যানজট নিরসনের জন্য আমরা আম হাট-বাজার কমিটির সাথে মিটিং করেছি। কিভাবে মহাসড়ক যানজট মুক্ত রাখা যায় সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

পুলিশের পক্ষে থেকে ট্রাফিক পুলিশ যানজট নিরসনে কাজ করবে। এছাড়া আম বাজার বিভিন্ন ধরণের অপকর্ম, অবৈধ ফেন্সিডিল, অস্ত্র, হামলা, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসসহ বিভিন্ন দূর্ঘটনা এড়াতে পুলিশ ফোর্স টহলরত থাকবে প্রতিমহুর্ত। আশা করছি, এবছর কানসাট যানজট মুক্ত থাকবে এবং কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here