‘হিন্দু জঙ্গি’ বিতর্কে মুখ খুললেন প্রিয়াঙ্কা

0
71

অবশেষে কোয়ান্টিকো বিতর্ক নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া৷ সম্প্রতি ‘কোয়ান্টিকো’র লেটেস্ট সিরিজ ‘দ্য ব্লাড অফ রোমিও’ তে এক হিন্দু জাতীয়তাবাদীকে জঙ্গি তকমা দিয়ে দেখানো হয়েছিল। আর তাঁকে এই তকমা দেওয়ার সংলাপটি বলেছেন খোদ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া অর্থাৎ এফবিআই এজেন্ট ‘অ্যালেক্স প্যারিস’৷ আর এতেই রেগে আগুন দেশবাসীরা৷ ইতিমধ্যে অভিনেত্রী কুশপুতুল পোড়ানো পোস্টার ছিড়ে বিতর্ক দেখান অনেকেই৷ অবশেষে চাপের মুখে নিজে ক্ষমা চাইলেন অভিনেত্রী৷

সম্প্রতি ট্যুইটারে অভিনেত্রী লেখেন, “আমি সত্যি মন থেকে ক্ষমা চাইছি কোয়ান্টিকো-র ওই এপিসোডটি নিয়ে৷ আমি ঘুনাক্ষরেও ভাবিনি বিষয়টি এতবড় আকার নেবে৷ কারোর ভাবাবেগে আঘাত করার আমার উদ্দেশ্য ছিল না৷ আমি গর্বিত নিজেকে ভারতবাসী বলে পরিচয় দিতে৷ আমি আমার দেশকে কখনই ছোট করতে চাইনি এবং ভবিষ্যতেও চাইবো না৷ খুবই দুঃখিত বিষয়টি নিয়ে৷”

আসলে ওই বিশেষ এপিসোডে দেখানো হয়েছে, নিউ ইয়র্কে জঙ্গি হামলা বানচাল করেছে এফবিআই এজেন্টরা৷ এবং এর জন্যে ১ জনকে গ্রেফতার করা হয়৷ সেখানে অ্যালেক্সের সহকারী বলছে, ধৃত ব্যক্তিটি আসলে পাকিস্তানি। তখন অ্যালেক্স বলেন, ও পাকিস্তানি নয়, গলায় রুদ্রাক্ষের মালা রয়েছে, ও আসলে একজন ভারতীয় জাতীয়তাবাদী। আসলে ও পাকিস্তানকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। এই এপিসোডটি এয়ার হওয়ার পর থেকেই ভারতের বিভিন্ন মহল থেকে নায়িকার দিকে ধেয়ে আসে একাধিক প্রশ্ন। সকলের একটাই কথা, যে দেশ ‘প্রিয়ঙ্কা’কে পরিচিতি দিয়েছে, সেই দেশের বিরুদ্ধে কী ভাবে নায়িকা এরকম অপমানজনক সংলাপ বলতে বাধ্য হলেন৷ এমনকি বর্ষীয়ান অভিনেতা তথা বিজেপির বিদ্রোহী সাংসদ শত্রুঘ্ন সিংহর, নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে ‘কোয়ান্টিকো’ সিরিজের ওই বিশেষ অংশটুকু শেয়ার করে নায়িকার সমালোচনা করেছেন।

এরকম পরিস্থিতিতে সুন্দরীকে বাঁচাতে দিনকয়েক আগে মাঠে নেমে গিয়েছেন নির্মাতা সংস্থা এবিসি। প্রকশ্যে তাঁরা ক্ষমাও চাইলেন। কিন্তু তাতে কোন প্রভাব না পড়ায় অবশেষে অভিনেত্রী স্বয়ং ময়দানে নামলেন৷ যদিও খানিকটা দেরীই করলেন তিনি৷ অতীতে প্রায় সব ইস্যুতেই নিজের মতামত আগেভাগে জানিয়ে থাকেন প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু এবারে নিজের ইচ্ছের বিরুদ্ধে গিয়ে ক্ষমা চাইলেন তা কিন্তু বেশ বোঝা যাচ্ছে।

এদিকে এই সিজনের পরেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ‘কোয়ান্টিকো’ টিভি সিরিজ। ভারত তো দূরে থাক, খোদ আমেরিকাতেই এর টিআরপির অবস্থা নিম্নমুখী। এর মধ্যে এই নবতম বিতর্কে টিআরপি আরও পড়েছে, বহু মানুষ ইতিমধ্যে ‘কোয়ান্টিকো’-কে ওয়ান স্টার রেটিং দিয়ে খারাপ রিভিউ লিখে এসেছেন। (Kolkata, West Bengal, India)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here