সাটুরিয়ায় সমাজপতিদের বিরুদ্ধে বিধবা মহিলার বাড়ী-ঘর দখলের চেষ্টার অভিযোগ: আহত-১ গ্রেফতার-১

0
553

সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) সংবাদদাতা ঃ মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় সমাজপতিদের বিরুদ্ধে বিধবা মহিলার বসত:ভিটা বাড়ী-ঘর দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পশ্চিম পূনাইল গ্রামে। অপর দিকে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিয়োগে থানা পুলিশ গতকাল বুধবার জাকির হোসেন নামে এক সমাজপতিকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পশ্চিম পূনাইল গ্রামে মৃত কুরান আলী স্ত্রী বিধবা মহিল উজালা বেগম র্দীঘ ৬৫ বছর যাবত বসত:ভিটায় বসবাস করে আসছে। এই বসত ভিটা ও ঘরবাড়ী এলাকা সমাজ পতিরা ও স্থানীয় ইউপি সদস্য জামানের নেতৃত্বে সাবেক হামিদ মেম্বার, সাবেক শাজাহান মেম্বার, বুলবুল মিয়া, জাকির হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, আবু হানিফ, আসলাম হোসেন ও হদয় জবর দখল নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। তাদের বিরুদ্ধে এই জমি জবর দখলের চেষ্টায় লিপ্ত থাকার অভিয়োগ রয়েছে।

সম্পতি এ নিয়ে এলাকায় একাধিকবার গ্রাম্য শালিশ বসে। গ্রাম্য শালিশ বসিয়ে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা দাবী করে বিধবা মহিলার কাছে। এ টাকা দিতে অস্বীকার করলে ঘর তৈরিতে বাধা গ্রদান করে সমাজ পতিরা। সমাজ পতিদের বাধাঁয় পুরাতন ঘর তৈরি না করায় খুলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন যাপন করছে বিধবা উজালা বেগম।

মঙ্গলবার বিধবা মহিলা তার পুরাতন ঘর তৈরি করার সময় স্থানীয় সমাজ পতিরা বাধা প্রদান করলে তাদের সাথে ধস্তা-ধস্তীর এক পর্যায়ে মহিলাকে মারপিট করলে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে বিধবার ছেলে মোঃ মোন্নাফ হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

এ ব্যাপারে পশ্চিম পূনাইল গ্রামের সমাজ পতি ও ইউপি সদস্য জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বাড়ীঘর দখলের চেষ্ঠার অভিযোগ ও মারপিটের কথা অস্বীকার করে বলেন,সমাজের কিছু জমি মহিলার দখলে আছে। এ নিয়ে আমরা গ্রাম্য শালীশ বসিয়ের দের লক্ষ টাকা জমির বাবদ দিতে বলা হয়েছে। এ টাকা না দিয়ে ঘর তৈরি কাজ চালার কারণে সমাজ থেকে বাঁধা প্রদান করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আমিনুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, লিখিত অভিয়োগ পেয়েছি ঘটনা স্থাথল তদন্ত করে জাকির হোসেন নামে একজন কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।