সাভারে আ.লীগ ও যুবলীগের দুই পক্ষের গোলাগুলি

0
117

সাভারে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের কালিয়াকৈর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের তিন নেতাকে আটক করেছে। এ সময় তিনটি শটগান জব্দ করা হয়।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করে জানান, আটক করা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দ্রুতবিচার আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। জব্দ করা অস্ত্র তিনটি বৈধ কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আটক নেতারা হলেন- সাভার থানা যুবলীগের সভাপতি ও ঢাকা জেলা পরিষদের সদস্য সেলিম মণ্ডল, বিরুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুস সামাদ এবং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সেলিম মণ্ডল ও আবদুস সামাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে সেলিম মণ্ডল ও তার লোকজন সামাদের বাড়িতে গিয়ে কয়েকজন নিরাপত্তা কর্মীকে মারধর করতে থাকেন। এসময় সামাদ ও তার লোকজন ফাঁকা গুলি ছুড়লে সেলিম ও তার লোকজনও পাল্টা গুলি ছোড়েন।দুই পক্ষের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ গোলাগুলির ঘটনা ঘটলেও এতে কেউ হতাহত হননি।