সিলেটে বিএনপি-জামায়াত প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও জোটের মাঝে কোনো বিভেদ নাই – ফখরুল

0
37

সিলেট প্রতিনিধি: সিলেট সিটি নির্বাচন থেকে ২০ দলীয় জোটের একক প্রার্থী নির্ধারণের সকল চেষ্টা আপাতত ব্যর্থ হয়েছে। তবে, ভবিষ্যতে আবারো এক হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন জোটের নেতৃবৃন্দ। সিলেটে শেষ অবধি জামায়াত ভোটে থাকলেও তাতে জোটের ঐক্যে প্রভাব ফেলবে না এবং জাতীয় নির্বাচনে দুই দল এক হয়েই লড়বে-এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপিকে চ্যালেঞ্জ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জামায়াত নেতা এহসানুল মাহবুব জুবায়ের মেয়র পদে প্রার্থী হয়েছেন। গত ৪ জুলাই বিএনপির পক্ষ থেকে জোটের পক্ষ থেকে একক প্রার্থী দেয়ার ঘোষণা এলেও জামায়াতকে বাগে আনতে ব্যর্থ হয় তারা। আর ৯ জুলাই প্রার্থিতা প্রত্যাহারের দিন শেষে হয়ে যায়। জামায়াত নেতা জুবায়ের সেখানে পেয়েছেন টেবিল ঘড়ি প্রতীক।

প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন থেকেই বিএনপি ও জামায়াতের মধ্যে তোলপাড় শুরু হয়। নির্বাচনে শক্তিশালী প্রার্থী হিসেবে জামায়াতের এহসানুল মাহবুব ছাড়াও থেকে যান বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম। তখন জোটের একক প্রার্থী হিসেব আরিফুল হককে টিকিয়ে রাখতে বিএনপির শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ জামায়াতকে প্রচারণা থেকে নিবৃত্ত করার চেষ্টা চালিয়ে আসছেন। তবে প্রচারণা শুরুর পাঁচদিন পেরিয়ে গেলেও নির্বাচন থেকে সরে আসার ডাকে সাড়া দেয়নি জামায়াত।

শনিবার সিলেটের মেয়র নির্বাচনে জামায়াতের প্রার্থীর বিষয়ে ২০ দলের জরুরি বৈঠক শেষে মির্জা ফখরুল আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে জামায়াতে ইসলাম ২০ দলের প্রার্থী হিসেবে আরিফুল ইসলামকে সমর্থন করবে। তারা বিএনপির প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবে বলে আমরা প্রত্যাশা করি।’

সিলেটে বিএনপি-জামায়াত প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও জোটের মাঝে কোনো বিভেদ নাই বলে দাবি করে ফখরুল জানিয়েছেন , ‘সিলেট সিটিতে স্থানীয় সরকার নির্বাচন হচ্ছে, এটি নিয়ে ঐক্য নষ্ট হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। এটি জাতীয় নির্বাচনে কোনো প্রভাব ফেলবে না। আমরা আশা করি সিলেটে জামায়াত বিএনপি প্রার্থীকে সমর্থন দেবে। আমাদের ঐক্য অটুট আছে।’

সিলেট সিটি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীর সাথে তাল মিলিয়ে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী। জোটের শক্তিশালী দল হিসেবে নিজেদের অস্তিত্ব আর ভোটব্যাংকের জানান দিতেই মূলত তারা নির্বাচনে লড়ে যাবেন শেষ পর্যন্ত-এমন তথ্য এসেছে দলটির পক্ষ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here