কালো বলে প্রিয়াঙ্কাকে মিস ইন্ডিয়া হিসেবে চাননি বিচারক!

0
151

সদ্য ৩৬ বছরে পা দিলেন। হলিউড-বলিউড সমানতালে সামলাচ্ছেন। আপাতত প্রেমিক নিক জোনাসের সঙ্গে লন্ডনে সময় কাটাচ্ছেন। ফিরে এসেই আবার সলমন খানের সঙ্গে ‘ভারত’-এর শুটিংয়ে যোগ দেবেন। প্রায় প্রতিদিনই সংবাদের শিরোনামে উঠে আসে তাঁর নাম। সোশ্যাল মিডিয়ায় ফলোয়ারের সংখ্যা অনেকের কাছেই ঈর্ষার বিষয়।

এহেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নাকি মিস ইন্ডিয়া ওয়ার্ল্ডের জন্য পছন্দ ছিল না এক বিচারকের। নায়িকার গাত্রবর্ণ নিয়ে আপত্তি ছিল তাঁর। যুক্তি ছিল, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া মেয়েটা নাকি বড্ড কালো। কিছুদিন আগেই প্রকাশিত হয়েছে অসীম ছাবরার বই ‘প্রিয়াঙ্কা চোপড়া: দ্য ইনক্রেডিবেল স্টোরি অফ আ গ্লোবাল বলিউড স্টার’। সেখানেই এ তথ্য ফাঁস করেন প্রদীপ গুহ নামে এক ব্যক্তি।

১৭ বছরের প্রিয়াঙ্কা যখন উত্তরপ্রদেশ থেকে মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন, প্রদীপ তখন প্রতিযোগীদের মেন্টরের দায়িত্বে ছিলেন। সে বছর মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স হয়েছিলেন লারা দত্ত। প্রিয়াঙ্কা হয়েছিলেন মিস ইন্ডিয়া ওয়ার্ল্ড। আর এশিয়া প্যাসিফিক সম্মানের জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন দিয়া মির্জা। প্রিয়াঙ্কার মধ্যে প্রতিযোগিতা জেতার সমস্ত গুণ ছিল। কিন্তু তা সত্ত্বেও ওই বিচারকের তাঁকে পছন্দ ছিল না।

কারণ তাঁর গায়ের রং কালো ছিল। প্রদীপের দাবি তখন তিনিই, বিচারকের বিরুদ্ধে কথা বলেন। জানান দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে মেয়েরা এসেও বিশ্বের মন জয় করছে। সেখানে বিচারক এমন ধারণা রাখেন কেমন করে? এই প্রশ্নের পরই নাকি ওই বিচারক চুপ করে যান।

প্রসঙ্গত, যে বছর প্রিয়াঙ্কা মিস ইন্ডিয়া ওয়ার্ল্ড হয়েছিলেন, বিচারকের আসনে ছিলেন শাহরুখ খান, জুহি চাওলা, ওয়াহিদা রহমান, মহম্মদ আজহারউদ্দিনের মতো তারকারা। এঁদের মধ্যে কে এমন মনোভাব পোষণ করতেন, তা অবশ্য জানাননি প্রদীপ। তবে তিনি জানান, গায়ের রঙের জন্য সে বছর দ্বিতীয় হননি প্রিয়াঙ্কা। প্রতিযোগিতার শেষ পর্যন্ত তাঁর ও লারা-র স্কোর একই ছিল। কিন্তু প্রিয়াঙ্কার মধ্যে জেতার সেই তাগিদ ছিল না। কারণ তিনি তখন জানতেনই না জীবনে কী করতে চান। তবে এখন দেশি গার্ল ভালভাবেই জানেন, কোন পথে তিনি যেতে চান।