রোনাল্ডো জিনিয়াস, এমবাপে গ্রেট !

0
31

স্পেনে আবার ফিরবেন?‌ রিয়েলে যাবেন?‌ প্রশ্নগুলো শুনে শুনে বিরক্তি ধরে যাওয়ার জোগাড়। যত চুপ থাকছিলেন, ততই যেন ডালপালা মেলছিল জল্পনা। সেই সব জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন নেইমার। ব্রাজিলীয় তারকা জানালেন, ‘‌আমি থাকছি। প্যারিসেই থাকছি। আমি চুক্তিবদ্ধ। বড় লক্ষ্য, নতুন চ্যালেঞ্জের জন্যই তো পিএসজি–তে যোগ দিয়েছিলাম। নিজের মত বদলায়নি। আশা রাখছি, এবারের মরশুমটা আমাদের ভাল কাটবে। রুপোলি পালক যোগ হবে। প্রেস গুজব ছড়িয়ে দিতে ভালবাসে। তবে সবাই জানে, আমি পিএসজির কতখানি খেয়াল রাখি।’‌ সাও পাওলোতে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার হয়ে অর্থ–সংগ্রহের জন্য নিলামের আয়োজন ছিল। সেখানেই গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এমন উত্তর দেন নেইমার।

বিশ্বকাপ চলাকালীন তাঁর ডাইভ দেওয়া নিয়ে অনেক হাসাহাসি হয়েছে। সমালোচিত হয়েছেন নিজের দেশেই। কিন্তু এত সমালোচনার পরও ব্যাপারটা নিয়ে নিজেই রসিকতা করেছেন নেইমার!‌ ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও পোস্ট করেন। নিন্দা আর নিন্দুক— কারওরই যে পরোয়া করেন না তাঁর প্রমাণ দিয়েছেন। কীভাবে?‌ ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, নেইমার চিৎকার করে বলছেন, ‘‌এক, দুই, তিন, গো.‌.‌.‌!‌’‌ নেইমার নির্দেশ দিতেই তাঁর পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা একগাদা কচিকাঁচা মাটিতে পড়ে গড়াগড়ি খাচ্ছে!‌ সেই গড়াগড়ি খাওয়ার জায়গাটাও যেমন–তেমন নয়, গাড়ি পার্কিংয়ের। কচিকাঁচারা যখন গড়াগড়ি খাচ্ছে, ‘‌এটাই হল ফ্রি–কিক!‌’‌ নেইমার চিৎকার করে এ কথা বলেই, হাসিতে ফেটে পড়ছেন। ব্রাজিলীয় তারকার এমন রসিকতায় নিন্দুকদের গায়ে ফোসকা পড়তে পারে।

তবে বাকিরা দারুণ মজা পেয়েছেন ইনস্টাগ্রামে এই ভিডিও দেখে। এমন রসিকতার পাশাপাশি, নেইমার আরও কিছু সিরিয়াস বিষয়ে কথা বলেছেন। সিরি এ–তে রোনাল্ডোর খেলতে যাওয়া নিয়ে নেইমার বলেছেন, ‘‌জুভেন্টাসে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো যোগ দেওয়ায় ইতালির ফুটবলে পরিবর্তন আসবে। আবার ইতালির ফুটবল নিয়ে চর্চা হবে, হইহই হবে। ঠিক যেমনটা দেখতাম ছোটবেলায়। ক্রিশ্চিয়ানো গ্রেট প্লেয়ার। ফুটবলের কিংবদন্তি। জিনিয়াস। তাই ওকে সম্মান তো দেখাতেই হবে।’‌

রোনাল্ডোর পাশাপাশি পিএসজি–তে তাঁর সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপেকে নিয়েও কথা বলেছেন নেইমার। দু’‌জনের সম্পর্কটা ঠিক ভাল নয়। ইতিমধ্যেই তা নিয়ে খবর রটেছে। বিশ্বকাপে এমবাপের দুরন্ত পারফরমেন্সের পর ছবিটা কি বদলাবে?‌ নেইমার এই প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে ক্লাব সতীর্থকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন, ‘‌ও দুর্ধর্ষ। গ্রেট প্লেয়ার।

আর এ কথা আমরা বেশ কিছুদিন ধরেই জানি। ক্লাবে ওর সঙ্গে প্রতিদিন সময় কাটে। তাই ওর যোগ্যতা যে কতখানি ধারণা আছে। এমবাপে বিশ্বকাপ জেতায়, খুব খুশি হয়েছি। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ও বিশ্বের সেরা প্লেয়ার হওয়ার লড়াইয়ে থাকবে। ওর সঙ্গে আবার দেখা হবে ভেবেই ভাল লাগছে। এমনিতে আমাদের নিয়মিত কথা হয়। বিশ্বকাপের সময়ও হয়েছে।’‌

শেষে নেইমার কথা বলেছেন জুভেন্টাস থেকে পিএসজি–তে এবার যোগ দেওয়া গিলিয়ানলুইগি বুফোঁকে নিয়েও। বলেছেন, ‘‌বুফোঁর মতো গ্রেট গোলকিপারের সঙ্গে একই ড্রেসিংরুম ভাগ করে নেওয়াটা সম্মানের। ও দুর্দান্ত মানুষও। ওর অনেক কিছু এখনও দেওয়ার আছে। ওর অভিজ্ঞতা আমাদের কাজে লাগবে।’‌ ‌‌(আজকাল, কলিকাতা)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here