পাকিস্তান নির্বাচনে স্বরণকালের সর্বাদিক সেনা মোতায়ন !

0
95

ভোটকে সুষ্ঠভাবে করতে পাকিস্তান সেনাবাহিনী সবদিক থেকে প্রস্তুত। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, নির্বাচন ‘স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষভাবে’ করতে ভোটের দিন সারাদেশে প্রায় তিন লাখ ৭১ হাজার সেনা মোতায়েন করা হবে। দেশে সবপ্রান্তে মোতায়েন করা হবে পাকিস্তান সেনা-জওয়ানদের।

শুধু তাই নয়, পাকিস্তান সেনাবাহিনীকে সব রকম সাহায্য করবে পাকিস্তান পুলিশ। দেশের বিভিন্ন জায়গায় করা হবে পিকেটিং। সন্দেহভাজন কিছু দেখলেই সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে স্পর্শকাতর সমস্ত জায়গা বাড়িত নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেওয়া থাকবে বলে সেনার তরফে জানানো হয়েছে।

পাক সেনা মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর রাজধানী ইসলামাবাদের অদূরে রাওয়ালপিন্ডিতে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আসন্ন নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রগুলোর ভেতরে ও বাইরে তিন লাখ ৭১ হাজার ৩৮৮ জন সেনা মোতায়েন থাকবে।যা ২০১৩ সালে হওয়া ভোটে মোতায়েন সেনার চেয়ে তিনগুণ বেশি। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের অনুরোধে সাড়া দিয়ে সেনাবাহিনী আসন্ন ভোটের সময় সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

অন্যদিকে, সেনাবাহিনী ইমরান খানের দলকে জিতিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে নেতিবাচক জবাব দিয়ে জেনারেল গফুর বলেন, “আমাদের কোনও রাজনৈতিক দল নেই। আমরা কারও আনুগত্য করি না।” ইমরান খান এরইমধ্যে সেনাবাহিনীর সঙ্গে তার দলের আঁতাতের অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানে ভোটের আগে দেশের প্রধান রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষ থেকে এই অভিযোগ উঠেছে যে, সেনাবাহিনী পাকিস্তানের রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করছে। এবং তারা এই কাজে সংবাদমাধ্যমকে এমনভাবে ব্যবহার করছে যাতে তেহরিকে ইনসাফ পার্টি ভোটে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here