৫৭ ধারার অপপ্রয়োগ বন্ধ করা হবে: তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী

0
25

জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের শেষ দিনের দ্বিতীয় অধিবেশনে যোগদান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারার অপপ্রয়োগ হয় স্বীকার করে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস হলে ওই ধারার অপপ্রয়োগ বন্ধ হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার নিজ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত কর্ম-অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের তিনি আরো বলেন, বস্তুতপক্ষে আইনটির (আইসিটি)  চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল তার (৫৭ ধারার) অপপ্রয়োগ। অতএব অপপ্রয়োগটা যাতে না হতে পারে সেই জায়গাটা নিশ্চিত করা সরকারের মূল উদ্দেশ্য।

৫৭ ধারা সংক্রান্ত যেসব অপরাধ ছিল নতুন আইনে পুলিশ সেসব বিষয়ে সরাসরি ব্যবস্থা নিতে পারবে না জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা এজেন্সির মহাপরিচালকের অনুমতিক্রমে শুধু ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। ফলে অপপ্রয়োগের জায়গাটাকে আমরা বন্ধ করার চেষ্টা করছি। ’

বর্তমানে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া ৫৭ ধারায় মামলা হয় না দাবি করে মন্ত্রী বলেন, ৫৭ ধারা বস্তুতপক্ষে ডেড। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন গত বুধবার স্থায়ী কমিটিতে প্রায় চূড়ান্ত করা হয়েছে। সেটি পাস হওয়ার পর ৫৭ ধারা নামের কোনো বস্তুর অস্তিত্ব থাকবে না। সুতরাং এটা নিয়ে টেনশনের কোনো কারণ নেই।

৫৭ ধারায় হওয়া মামলাগুলো স্বাভাবিক গতিতে আইনানুগভাবে নিষ্পত্তি হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, যে মামলা যেভাবে যে আইনের আওতায় আছে ওটা ওভাবেই নিষ্পত্তি হতে হবে। তিনি বলেন, ‘৫৭ ধারার কোনো ধারণা আমরা নতুন আইনে রাখিনি।

 

মামলা নিষ্পত্তিতে প্রতি জেলায় সমন্বয় কমিটি

অনিষ্পন্ন ৩৪ লাখ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য জেলা জজের নেতৃত্বে ‘জেলা মামলা সমন্বয় কমিটি গঠন’ করা হচ্ছে। এ কমিটি যেন সঠিকভাবে কাজ করতে পারে সে বিষয়ে ডিসিদের সহায়তা চেয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। নিজ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত কর্ম-অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের তিনি আরো বলেন, “আমরা মামলাজটে জর্জরিত। আজকের পরিস্থিতি, প্রায় ৩৪ লাখ মামলা অমীমাংসিত রয়েছে। সেই ক্ষেত্রে আমরা নতুন করে জেলা জজকে প্রধান করে ‘ডিস্ট্রিক কেস কো-অর্ডিনেশন কমিটি’ গঠন করার উদ্যোগ নিয়েছি। এ কমিটি সাক্ষী বা ইনভেস্টিগেশন রিপোর্ট দ্রুত আসতে সহায়তা করবে। এ ক্ষেত্রে ডিসিদের ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছি। ’ এ কমিটিতে কারা কারা থাকবেন জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, জেলা জজ, ডেপুটি কমিশনার, এসপিসহ জেলার কর্ণধাররাই কমিটিতে থাকবেন। এ কমিটি সঠিকভাবে কাজ করতে পারলে মামলাজট কমে আসবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

পশুর হাট যেন অস্থির না হয়, সতর্ক থাকতে ডিসিদের নির্দেশ

কোরবানির পশুর হাটে প্রভাব খাটিয়ে কেউ যাতে ‘অস্থিরতা’ সৃষ্টি করতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নির্দেশ দিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ। ডিসি সম্মেলনের তৃতীয় দিনে গতকাল সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে নৌপরিবহন এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের কার্য-অধিবেশন মন্ত্রী এই নির্দেশ দেন।

পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘কোরবানির হাটে পশুর স্বাস্থ্যের বিষয়ে ডিসিদের নজর দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাটে যে পশুগুলো আসবে সেগুলোর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে। নিরাপদ ও সুন্দর স্বাস্থ্যের পশুগুলো যাতে কোরবানির জন্য যেতে পারে। কোথাও কেউ যাতে কোরবানির মার্কেটের ওপর প্রভাব ফেলতে না পারে, জেলা পর্যায়ে ডিসিরাই মূলত এটা নিয়ন্ত্রণ করেন। আমাদের কর্মকর্তারাও থাকবেন, সহায়তা দিয়ে তাদের এটাকে নিয়ন্ত্রণে রাখার কথা বলা হয়েছে। ’

কোরবানির জন্য দেশে পর্যাপ্তসংখ্যক পশু রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এবার প্রয়োজনের চেয়েও বেশি পশু আছে। ফলে এ নিয়ে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। ম্যানেজমেন্ট ঠিক রাখতে পারলেই কোরবানি সুন্দরভাবে পার হয়ে যাবে।

ক্ষতিকর ওষুধ ব্যবহার করে গরু মোটাতাজাকরণের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, আগে স্টেরয়েড ব্যবহার করে গরু মোটাতাজা করা হতো, ওই মাংস মানুষের জন্য ক্ষতিকর। এ বিষয়ে আমরা শতভাগ নিশ্চয়তা দিতে না পারলেও আমরা নিশ্চয়তা দিচ্ছি—এই দিক থেকে সন্দেহমুক্ত থাকতে পারেন। ’

নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেন, ‘প্রতিটি গরুতে না হলেও আমাদের হিসাবের মধ্যে যারা রয়েছে সেখানে গরুর দৈনন্দিন খাবার কী সেটাও আমাদের মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তারা তদারক করছেন। ’

বেশি লাভের আশায় জাতির ক্ষতি না করতে খামার মালিকদের বোঝানো হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তোমরাও ব্যবসা করো, জাতিকেও ভালো খাবার দাও। এভাবে মানুষ কিন্তু ফিরে আসছে। ফরমালিনযুক্ত মাছ এখন এক প্রকার নেই, এটাও কিন্তু মোটিভেশন। ’

নদীর দখল-দূষণ ঠেকাতে ডিসিদের নির্দেশ

দেশের নদ-নদী দখল ও দূষণ রোধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে ডিসিদের  নির্দেশ দিয়েছেন নৌমন্ত্রী শাজাহান খান। ডিসি সম্মেলনে নৌপরিবহন এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের কার্য-অধিবেশনে মন্ত্রী এই নির্দেশ দেন। বৈঠকের পর শাজাহান খান সাংবাদিকদের বলেন, ‘নদীদূষণমুক্ত, দখলমুক্ত করার জন্য আমরা ডিসিদের দায়িত্ব দিলাম। একই সঙ্গে তাঁদের এই বিষয়টা বললাম যে সচেতনতাই হচ্ছে মূল বিষয়। ’

নদী দখল ও দূষণ রোধে নদীর পারে সীমানা নির্ধারণ করে সেখানে জনসমাবেশ, মানববন্ধন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করে মানুষকে সচেতন করার পাশাপাশি নদীগুলো রক্ষার দায়িত্বও ডিসিদের দেওয়া হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

সরকারি দলের কেউ ডিসিদের কাজে হস্তক্ষেপ করে না

সরকারি দলের কেউ ডিসিদের কাজে হস্তক্ষেপ করে না বলে মন্তব্য করেছেন ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ। ডিসি সম্মেলনের তৃতীয় ও শেষ দিনের তৃতীয় কার্য-অধিবেশন শেষে মন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

সরকারি দলের নেতাদের হস্তক্ষেপে অনেক স্থানে ডিসিরা সরকারি বেদখল হওয়া জমি উদ্ধার করতে পারছেন না, এ বিষয়ে তাঁরা কিছু বলেছেন কি না—জানতে চাইলে ভূমিমন্ত্রী বলেন, এটা ঠিক না। প্রধানমন্ত্রী ডিসি সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানিয়েছেন, ‘দলমত-নির্বিশেষে যেখানে আপনাদের কাজের ওপর হস্তক্ষেপ আসবে আপনারা প্রয়োজন হলে আমাকে সরাসরি জানান। তার পরও আপনারা এই প্রশ্ন করলেন?’

বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের অফিস সরকারি জমিতে—এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে শামসুর রহমান বলেন, ‘যদি সে রকম কিছু থাকে তবে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

ভূমি ব্যবস্থাপনা ও সেলেটমেন্ট ব্যবস্থা ডিজিটাইজেশনে কত বছর লাগবে—এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার ২০ বছর লেগেছিল, ইন্ডিয়া এখনো সম্পন্ন করতে পারেনি। আমাদের পাঁচ থেকে সাত বছর লাগবে টোটাল সিস্টেমটি ডিজিটাইজেশন করতে।

নির্বাচনে ডিসিদের সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য ডিসিদের সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। ডিসি সম্মেলনের শেষ দিনের শেষ কার্য-অধিবেশনে তিনি এ নির্দেশ দেন। অধিবেশন শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ডিসিদের বলেছি, ‘আগামীতে নির্বাচন আসছে। নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণার পর শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরাপত্তা বাহিনী যথেষ্ট প্রস্তুত রয়েছে। তাদের সক্ষমতাও যথেষ্ট বৃদ্ধি হয়েছে। ইলেকশন কন্ডাক্টে তাদের প্রয়োজনীয় জনবল, লজিস্টিক সাপোর্ট দেওয়া হচ্ছে; যেগুলো বাকি আছে তা দেওয়া হবে। তিনি বলেন, ‘তাঁদের (ডিসি) আহ্বান করেছি একটা সুষ্ঠু নির্বাচন জাতিকে উপহার দিতে দায়িত্বটা যেন তারা সঠিক সময়ে সঠিকভাবে পালন করেন। ’ ডিসি-এসপিদের সমন্বয় নিয়ে কোনো কথা এসেছে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘না, এই ধরনের কোনো কথা আসেনি। আমি যে কথাগুলো বললাম, এর বাইরে তারা কোনো কথা জিজ্ঞেস করেনি। ’

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here