‘সকল কিছু সহ্য করা হবে কিন্তু দূর্নীতি সহ্য করা হবে না’ – ইবি উপাচার্য

0
236

ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেছেন, ‘বিচ্ছিন্ন দুই একটি ঘটনার কারণে আমাদের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমাজের সততা, নিষ্ঠা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। আমি উপাচার্য হিসেবে এইটুকু বলতে চাই ‘সকল কিছু সহ্য করা হবে কিন্তু দূর্নীতি সহ্য করা হবে না। সুতরাং এক জন সৎ মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে হবে। প্রতিটি শিক্ষক হবে তার ছাত্রদের কাছে এক একটি রোল মডেল। কি শিক্ষায়, কি গবেষণায়, কি মানুষ হিসেবে, কি দেশাত্মবোধ, কি দেশ প্রেম, কি প্রগতিশীলতায়। এক একটি শিক্ষক হবে এক একটি রোল মডেল।’

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রগতিশীল শিক্ষকদের সংগঠন শাপলা ফোরামের পূণর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন তিনি।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন শাপলা ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান।

এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে সংগঠনটির জেষ্ঠ্য শিক্ষক ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. রুহুল কে এম সালেহ, অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মুঈদ রহমান, লোক প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড. নাসিম বানু, শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, ইংরেজী বিভাগের সভাপতি ও ফরিদপুর বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় ‘টাইমস্ ইউনিভার্সিটির’ উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম আক্তারুল ইসলাম জিল্লু, দেশরত্ন শেখ হাসিনা হল প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম, পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেনসহ শতাধিক শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে অতিথিদের সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয় এবং সদ্য নিয়োগ প্রাপ্ত বিভিন্ন বিভাগের ৫৮ জন শিক্ষককে সংবর্ধনা দেয়া হয়। পূণর্মিলনিতে শিক্ষকরা স্ব-পরিবারে অংশগ্রহণ করেন। আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও আমন্ত্রিত শিল্পীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ