ভারতকে এশিয়া কাপ না খেলার পরামর্শ শেবাগের

0
78

দীর্ঘ ইংল্যান্ড সিরিজের পরই সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়া কাপ খেলার কথা রয়েছে ভারতের। এশিয়া কাপের গ্রুপপর্বেই পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ কোহলিদের। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে হারের শোধ নেয়ার ‘সুযোগ’ও পাচ্ছে তারা দুবাইতে। কিন্তু এহেন প্রতীক্ষিত টুর্নামেন্ট থেকেই ধোনি-কোহলিদের নাম প্রত্যাহারের পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক ওপেনার বীরেন্দ্র শেবাগ।

আসলে গোল বেঁধেছে এশিয়া কাপের সূচি নিয়ে। সদ্যঘোষিত সূচি অনুযায়ী ১৮ সেপ্টেম্বর প্রথম ম্যাচ খেলবে ভারত। তার ঠিক পরদিনই অর্থাৎ, ১৯ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ তাদের।

টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টেও সচরাচর যা হয় না, সেটাই এবার হতে যাচ্ছে এশিয়া কাপে। পরপর দু’দিন দুটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে হবে ভারতকে। একপ্রকার ক্লান্ত ভারতীয় দলকেই পাকিস্তানের মুখোমুখি হতে হবে। আইসিসির এমন সূচি নিয়ে তাই ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে সমালোচনা। ভারতের অনেক সাবেক ক্রিকেটারই এর বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। এবার সেই তালিকায় যোগ হয়েছেন শেবাগ।

বলেছেন, সূচি তৈরিতে যখন এত সমস্যা হচ্ছিল তখন ভারত এশিয়া কাপ না খেললেই তো পারে। যেকোনো ক্রিকেটারের ম্যাচের পরে বিশ্রামের জন্য অন্তত ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা সময়ের প্রয়োজন হয়। কোনোভাবেই পরপর ম্যাচ হওয়া উচিত নয়।’

শেবাগের আরো বক্তব্য, ‘সেপ্টেম্বরে যখন ভারত দুবাইয়ে এশিয়া কাপের ম্যাচ খেলবে তখন প্রচণ্ড গরমে ক্রিকেটারদের ফিটনেসের সমস্যা দেখা দিতে পারে। আগের দিন ম্যাচ খেলার ফলে আমাদের ছেলেরা ক্লান্ত থাকবে, অন্যদিকে পাকিস্তান দল পুরোপুরি ফিট থাকবে। এই অবস্থায় ভারত যদি ম্যাচ হেরে যায় তাহলে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হবে ক্রিকেটারদের। ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দেয়ার জন্য ইংল্যান্ডে চারদিনের প্রস্তুতি ম্যাচের একদিন কমিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই। এসব না করে বরং এশিয়া কাপ না খেলার সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত ছিল।’

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু টুর্নামেন্ট। প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা।

গ্রুপ ‘এ’তে ভারতের সঙ্গে রয়েছে পাকিস্তান ও একটি কোয়ালিফায়ার দল। গ্রুপ ‘বি’তে থাকছে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা এবং আফগানিস্তান। আর কোয়ালিফায়ারে যোগ্যতা অর্জনের দৌঁড়ে রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিররাত, ওমান, নেপাল, মালয়েশিয়া এবং হংকং।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here