সিসিক নির্বাচন, অপেক্ষা ঘোচিয়ে বিজয়ী আরিফ !

0
56

সিলেট প্রতিনিধি : সিসিক নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরী বে-সরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। শনিবার (১১আগষ্ট) সিসিকের স্থগিতকৃত দুটি কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণ শেষে গণনার পর আরিফের বিজয়ের বিষয়টি নিশ্চিত হয়।

এ দুই কেন্দ্রের মোট ৪৭৮৭ ভোটের মধ্যে ১৬২ ভোট পেলেই আরিফের জয় নিশ্চিত হয়ে যেতো। তবে আরিফ দুই কেন্দ্র মিলিয়ে পেয়েছেন ২১০২ ভোট। সব কেন্দ্র মিলিয়ে প্রাপ্ত ফলাফলে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি থেকে ৬ হাজার ২০১ ভোট বেশি পেয়ে আরিফ বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচনে সকল কেন্দ্র (১৩৪) মিলিয়ে ধানের শীষ প্রতিকে আরিফ পেয়েছেন ৯২ হাজার ৫৯৮ ভোট। আরিফের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগ নেতা বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। নৌকা প্রতিকে তিনি পেয়েছেন ৮৬ হাজার ৩৯৭ ভোট।

এদিকে, আজ পুনঃভোটে গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ২২২১ জন। এর মধ্যে আজ ভোট পড়েছে ১৩১২টি। তন্মধ্যে ধানের শীষে আরিফ পেয়েছেন ১০৪৯ ভোট, নৌকায় কামরান পেয়েছেন ১৭৩ ভোট। হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ধানের শীষে আরিফ পেয়েছেন ১০৫৩ ভোট, নৌকায় কামরান পেয়েছেন ৩৫৪ ভোট।

নির্বাচনের বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান বলেন, ‘আজ পুনঃভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে। কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।’ গেল ৩০ জুলাই সিসিকের চতুর্থ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে অনিয়মের কারণে দুটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছিল।

বাকি ১৩২টি কেন্দ্রে কামরানের চেয়ে ৪৬২৬ ভোটে এগিয়ে ছিলেন আরিফ। তবে স্থগিতকৃত ২৪নং ওয়ার্ডের গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র এবং ২৭নং ওয়ার্ডের হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র মিলিয়ে ভোট সংখ্যা ৪৭৮৭ হওয়ায় আরিফকে বিজয়ী ঘোষণা করেনি নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তারা সিদ্ধান্ত নেয় পুনরায় ওই দুই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের।

৩০ জুলাইয়ের ভোটে এগিয়ে থাকার পরও তাই অপেক্ষায় ছিলেন আরিফ। আজ অনুষ্ঠিত হওয়া ওই দুই কেন্দ্রের পুনঃভোট নিয়েও অনেকটাই নির্ভার ছিলেন তিনি। কেননা, বড্ড জটিল সমীকরণের মধ্যে আরিফকে টপকে জয় পাওয়া কামরানের জন্য রীতিমতো অসম্ভবই ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here