জঙ্গি তাণ্ডবে আফাগানিস্তানে নিহত ২৫

0
25

রাজধানী থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন গজনী৷ কাবুল থেকে ২ ঘণ্টা দূরে গজনী শহরে শুক্রবার থেকে লুকিয়ে আছে তালিবান জঙ্গিরা৷ চলছে তালিবান-নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিযুদ্ধ৷ তালিবান জঙ্গিদের হামলায় গত ২ দিনে নিহত ২৫ পুলিশ ও ১ সাংবাদিক৷ শহরটিকে কাবুল থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন করেছে তালিবানরা৷ টেলিফোন সংযোগ থেকে সড়ক যোগাযোগ পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত৷

মূলত কাবুল-গজনী সংযোগকারী সড়কেই ঘাঁটি তালিবান জঙ্গিদের৷ গজনী দখল করার লক্ষ্যেই তালিবানদের এই বড়সড় হামলা৷ শুক্রবার থেকে চলা গুলিযুদ্ধ রবিবার বন্ধ হোলেও জঙ্গিদের লুকিয়ে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী৷ গজনীর বিভিন্ন সরকারি দফতর তছনছ করেছে জঙ্গিরা৷

শহরের টেলিকম লাইন পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় প্রশাসনের তরফে সরাসরি সাহায্য পাচ্ছে না গজনী৷ গজনীর উপর তালিবানদের হামলা প্রশাসনকে জঙ্গিদের বড় চ্যালেঞ্জ বলেই মনে করা হচ্ছে৷ ২০১৫ সাল কুন্দুজ প্রদেশ দখলের পরিকল্পনা করে তালিবান৷ সেই উদ্দেশ্য সফল হয়নি৷ নতুন করে তাই গজনীকে দখল করে নিজেদের অস্তিত্বের জানান দিতে তৎপর হয় তালিবান৷

আফগান সেনাদের তৎপরতা ও ন্যাটো বাহিনীর সাহায্যের ফলে আফগানিস্তানের বিভিন্ন শহর দখলের চেষ্টা করলেও সফল হয়নি তালিবান৷ তবে শুক্রবারের হামলা এতটাই ভয়ানক ছিল যে, ২ দিন ধরে গজনী তালিবানদের দখলেই ছিল৷ এখনও শহরকে জঙ্গিমুক্ত বলতে পারছে না আফগান প্রশাসন৷

তালিবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদের দাবি, গজনীর বিভিন্ন এলাকায় এখনও তৎপর তালিবান৷ প্রচুর অস্ত্র লুঠ করা হয়েছে, গজনীর একাধিক এলাকা এখনও তালিবানদের দখলেই৷ প্রশাসনিক বাহিনী তালিবানদের সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে৷ এমনকি জঙ্গিরা যাতে আত্মসমর্পন করে তার জন্য তালিবানদের সঙ্গে প্রশাসনিক বৈঠকও করছে আফগান প্রশাসন৷

অবশ্য জল্পনা দানা বাঁধছে ফেসবুকে তালিবানেরই কার পোস্ট ঘিরে৷ যেখানে দাবি করা হচ্ছে গজনীর একমাত্র জেল এখনও তালিবানদের দখলে৷ সেথান থেকে ইতিমধ্যে ১০০ তালিবানি বন্দিদের মুক্ত করা হয়েছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here