রি-প্রেজেন্টেটিভদের হাতে জিম্মি সাটুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স !

0
224

মো: শামীম হোসাইন নু’মানী: মানিকগঞ্জ সাটুরিয়া উপজেলায় সরকারী ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্খ্য কমপেক্স ও বেসরকারী ক্লিনিক এবং ডাক্তারের চেম্বারের সামনে ঔষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের হাতে নাজেহালের শিকার হচ্ছে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা সাধারণ রোগীরা।

সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ঔষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিরা তাদের টারগেট পূরণ করার লক্ষে, ডাক্তার ও প্রতিষ্ঠান কে প্রকাশ্যে ও গোপনে দামী টিভি, ফ্রিজ, প্যাড, চাবির রিং আসবাবপত্র সরবরাহ করে থাকে বলে জানা যায়। স্বাস্থ্য কমপেক্স গুলোতে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের সাথে ভাল ব্যবহার না করে হাসপাতালের ডাক্তাররা নামে বেনামের ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের সাথে দীর্ঘ সময় ব্যয় করে।

এ বিষয়ে উপজেলার একাধিক ভুক্তভোগীরা জানায় হাসপাতালে গিয়ে লাইন ধরে চিকিৎসা নিয়ে বের হওয়ার সময় বিভিন্ন ঔষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিরা রোগী কিংবা তাদের স্বজনের হাত থেকে চিলের মত প্রেসক্রিপশন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। তাদের কিছু বললে- স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের ভয় দেখায়। পরবর্তীতে প্রতিবাদ করা রোগীরা চিকিৎসা নিতে ডাক্তাররা তাদের সাথে খারাপ আচরণ করে। আমরা কোন দিকে যামু… ।


উপজেলা স্বাস্খ্য কমপ্লেক্স এ কর্মরত কয়েকজন ব্যক্তি জানায় রিপ্রেজেন্টেটিভরা তাদের নিজেদের অবস্থান কোম্পানীর কাছে তুলে ধরতে রোগীদের ব্যবস্থাপত্রে তাদের কথা মত ডাক্তাররা নিজেদের কোম্পানীর ঔষুধ লিখেছে কিনা তা দেখে টিক চিহ্ন দিয়ে দেয়। এর সাথে সাথে মোবাইল ফোনে এবং প্যাডে তুলে রাখে।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক হাসপাতালের কর্মরত ডাক্তাররা বলেন, আমরা একাধিক বার তাদের হাসপাতাল চলাকালীন সময়ে আসতে নিষেধ করলেও কে শুনে কার কথা। যার ফলে উপজেলার সাধারণ রোগীরা চিকিৎসা নিতে আসলে হাসপাতালে কিছু অসাধু ডাক্তার ও হাতুরে ডাক্তার ফার্মাসিষ্টদের ফাদে পরে অশিক্ষিত রোগীরা নামে-বেনামের ঔষুধ কোম্পানীর নি¤œ মানের ঔষুধ সেবন করে প্রতারিত হচ্ছেন । এক শ্রেণীর দালাল প্রকৃতির ডাক্তার ও ঔষধ কোম্পানিদের রিপ্রেজেটেটিভ যোগ সাজসে দীর্ঘদিন এই কার্যক্রম চালাচ্ছে।

উপজেলার সুশীল সমাজ সাটুরিয়া সরকারি হাসপাতালে দালাল মুক্ত করে হাসপাতালের সুন্দর পরিবেশ ও অসাধু ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য সাধারণ রোগীরা মাননীয় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব জাহিদ মালেক স্বপন এম,পি সংসদ সদস্য -০৩ এর হস্তক্ষেপ কামনা করছে।