ইংলিশদের জয়, ‘কিংবদন্তী’র বর্ণিল বিদায়

0
14

মঞ্চ প্রস্তুত ছিলো, শুধুমাত্র শেষের অপেক্ষায় ছিলো পুরো ইংল্যান্ড। শেষ বারের মতো কিংবদন্তীকে বিদায় জানাতে হবে, বিদায় বেলার জয় উপহার দেয়ার থেকে ভালো কিছু আর কি হতে পারে! আর ঠিক সেটাই হলো, জয়ী বেশে মাঠ ছাড়লেন কুক।

ওভাল টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ, কুক আরও একবার ভাসলেন করতালির বৃষ্টিতে। টুপি খুলে অভিনন্দনের জবাব দিলেন কুক। ৪৬৪ রানের লক্ষ্য, চতুর্থ দিনে রান তাড়া করতে নেমে ২ রান তুলতেই ভারত হারিয়ে ফেলেছিল ৩ উইকেট।

তবে সেখান থেকেই হাল ধরেছিলেন লোকেশ রাহুল ও আজিঙ্কা রাহানে,চতুর্থ উইকেটে ১১৮ রান যোগ করেন রাহানে। মইন আলির বলে কিটন জেনিংসে কাছে ক্যাচ দিয়ে আউট হন রাহানে। রানের খাতা খোলার আগেই আউট হানুমা বিহারি। ১২১ রানে ভারতের ৫ উইকেট নেই।

ঠিক তখনই ঘুরে দাড়ানো জুটি গড়লেন লোকেশ রাহুল আর পান্ত। ষষ্ঠ উইকেটে তারা যোগ করে ২০৪ রান আর ভারত পেয়ে যায় শক্ত ভিত,এমনকি জয়ের সম্ভাবনাও তৈরি হয়। কিন্তু আদিল রশিদের দারুণ টার্নের শিকার হয়ে আউট হন লোকেশ রাহুল, ১৪৯ এ থেমে যেতে হয় রাহুলকে।

রাহুলের আউটের পরেই মূলত ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ভারত, একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসাবে ছিলেন রবীন্দ্র জাদেজা। এবার রশিদে কাটা পড়েন পান্ট,গুগলি বুঝতে না পেরে মইন আলির কাছে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান পান্ট আর ম্যাচটা পুরোটাই হাতছাড়া হয়ে যায় ভারতের। ১৪৬ বলে ১১৪ করে ফিরে যান পান্ট।

মাঝে যাওয়া আসার ভেতর ছিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। শেষ ব্যাটসম্যান হিসাবে শামি আউটের পর ৪-১ এ সিরিজ জিতে নেয় ইংল্যান্ড। গ্লেন ম্যাকগ্রাকে টপকে ৫৬৪ উইকেট নিয়ে সর্বকালের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি পেসার হয়ে গেছেন অ্যান্ডারসন।

ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে যায় ৩৪৫ রানে।

নিজের সবশেষ টেস্ট ইনিংসে সেঞ্চুরি করা কুক জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার। ‘কিংবদন্তী’ কুক বিদায় নিলেন রাজার মতো। টেস্ট ক্রিকেটে এসে ছিলেনও রাজার মতো, অভিষেকে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে। সিরিজ সেরার পুরস্কার জেতেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও ইংল্যান্ডের তরুণ অলরাউন্ডার কারান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৩৩২

ভারত প্রথম ইনিংস: ২৯২

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: (তৃতীয় দিন শেষে ১১৪/২) ১১২.৩ ওভারে ৪২৩/৮ ডিক্লে. (কুক ১৪৭, জেনিংস ১০, মইন ২০, রুট ১২৫, বেয়ারস্টো ১৮, স্টোকস ৩৭, বাটলার ০, কারান ২১, রশিদ ২০*; বুমরাহ ০/৬১, ইশান্ত ০/১৩, শামি ২/১১০, জাদেজা ৩/১৭৯, বিহারি ৩/৩৭)

ভারত ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৪৬৪, চতুর্থ দিন শেষে ৫৮/৩) ৯৪.৩ ওভারে ৩৪৫ (রাহুল ১৪৯, ধাওয়ান ১, পুজারা ০, কোহলি ০, রাহানে ১১৪, জাদেজা ১৩, ইশান্ত ৫, শামি ০, বুমরাহ ০*; অ্যান্ডারসন ৩/৪৫, ব্রড ১/৪৩, মইন ১/৬৮, কারান ২/২৩, স্টোকস ১/৬০, রশিদ ২/৬৩, রুট ০/১৭)

ফল: ইংল্যান্ড ১১৮ রানে জয়ী

সিরিজ: ৫ ম্যাচের সিরিজে ইংল্যান্ড ৪-০তে জয়ী (এসএনপিস্পোর্টস)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here