শরীয়তপুরে কলেজ ছাত্রী তানু হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসি

0
18

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ কলেজ ছাত্রী সামসুন্নাহার তানু (২২) হত্যা মামলার তিন জন আসামীকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। নিহত সামসুন্নাহার তানু শরীয়তপুর সরকারি গোলাম হায়দার খান মহিলা কলেজের অনার্স শ্রেণীর ছাত্রী, চররোসুন্দি গ্রামের হাফিজ উদ্দিন পাটোয়ারীর মেয়ে ও পৌরসভার দক্ষিন বালুচড়া গ্রামের দুবাই প্রবাসী ইছাহাক মোল্যার স্ত্রী ছিল।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আ. সালাম খান অভিযুক্ত আসামীদের ফাঁসির রায় পাঠ করেন। এ সময় শরীয়তপুর সদর উপজেরার চররোসুন্দ গ্রামের মজিবর রহমান পেদার ছেলে আসামী সাইফুল ইসলাম (২২), মান্নান মাদবরের ছেলে আসামী দুলাল (২২) ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিল। মামলার প্রধান ও পরিকল্পনা কারী আসামী রেজাউল করিম সুজন (২৩) পলাতক রয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেছেন পাবলিক প্রসিকিউটর (পিাপ) এডভোকেট মির্জা হজরত আলী ও এডভোকেট ফিরোজ আহমেদ। আসামী পক্ষে ছিলেন এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন।

মামলার এজাহার ও ট্রাইব্যুনাল সূত্রে জানাগেছে, ২০১৪ সালের ১৭ আগস্ট বিকাল ৪টার সময় শরীয়তপুর পৌরসভার দক্ষিন বালুচড়া গ্রামের ইছাহাক মোল্যার বাড়ি থেকে তার স্ত্রী সামসুন্নাহার তানু প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে বাহির হয়ে আর ফিরে আসেনি। স্বামী ইছাহাক মোল্যা দুবাই প্রবাসে থাকায় তার বড় ভাই আবুল কাসেম মোল্যা ওই দিনই পালং মডেল থানায় সাধারন ডাইরী করে।

পুলিশ মামলার পরিকল্পনাকারী ও প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাদে হত্যার দায় স্বীকার ও সহযোগী আসামী দের নাম প্রকাশ করে। আসামীর দেখানো মতে পৌরসভার ধানুকা গ্রামের সরদার নাসির উদ্দিন কালুর বসত বাড়ির নিকট থেকে ইট বেঁধে ডুবিয়ে রাখা তানুর গলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ বিষয়ে ২২ আগস্ট পালং মডেল থানায় ৩ জন আসামী করে মামলা দায়ের করে নিহতের ভাসুর আবুল কাসেম মোল্যা।

২০১৫ সালের ২৩ মার্চ মামলার অভিযোগ গঠন হয়। ২০১৬ সালের ১৩ জানুয়ারী মামলার সাক্ষি শুরু করে ট্রাইব্যুনাল। রাষ্ট্রপক্ষ ১৭ জন সাক্ষি ট্রাইব্যুনালে উপস্থাপন করে সাক্ষ্য প্রদান করেছে। গত ৯ সেপ্টেম্বর ট্রাইব্যুনালে যুক্তিতর্ক শুনানী হয়। ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার বেলা ১১টার সময় ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসামীদের ফাঁসির আদেশ শোনান।

মামলার বাদী আবুল কাসেম মোল্যা ও রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ট্রইব্যুনালের রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। আসামী পক্ষের আইনজীবী ন্যায় বিচার পায়নি তাই উচ্চ আদালতে যাবে বলে জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here