জাবিতে গেটে তালা ঝুলিয়ে আন্দোলনে করছে শিক্ষার্থীরা

0
78

আরিফুল ইসলাম আরিফ, জাবি প্রতিনিধি:
অঘোষিত ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন রাখার জেরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ( জাবি) ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের গেটে তালা ঝুলিয়ে আন্দোলন শুরু করেছেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

রোববার সকাল থেকেই বিভাগে জড়ো হতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। পরে বেলা ১১টায় ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ভেতরে শিক্ষকদের রেখেই বাহির থেকে তালাবদ্ধ করে দেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। ফলে বিভাগের কোনো শিক্ষক ইচ্ছা করলেও বাইরে আসতে পারছেন না। এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের বিভাগের করিডোরে অবস্থান নিয়ে ক্লাস –পরীক্ষার দাবিতে স্লোগান দিতে দেখা গেছে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, বিভাগের শিক্ষকদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে স্বার্থ হাসিল করার পাঁয়তারা করছেন শিক্ষকরা। কিন্তু তাদের এ কোন্দলে বিভাগের প্রায় সাড়ে তিন শতাধিক শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে।

শিক্ষকদের ভেতরে রেখে বিভাগে তালা দেয়ার বিষয়ে শিক্ষার্থীরা বলেন, কোনো শিক্ষকই আমাদের ক্লাস-পরীক্ষা নিচ্ছেন না। কিন্তু তারা নিয়মিত বিভাগের যাতায়াত করছেন। তাই বিভাগেই তাদের তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে। ক্লাস-পরীক্ষায় ফিরে যাওয়ার লিখিত আশ্বাস না দেয়া পর্যন্ত তালা খুলবেন না বলেও জানান বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

এর আগে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে বিভাগের একাডেমিক সভা না হওয়ার অজুহাতে আঘোষিতভাবে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে বিভাগের অধিকাংশ শিক্ষক। ফলে ঈদুল আজহার পর থেকে ওই বিভাগে কার্যত শিক্ষা কার্যক্রমে স্থবিরতা চলছে।

এ বিষয়ে বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মো. মনজুরুল হাসান বলেন, ‘আমি সকালে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। তাদের মতামত নিয়েছি। তবে শিক্ষকরা ক্লাস-পরীক্ষা নিতে চাচ্ছেন না। যদি কোনো শিক্ষক ক্লাস-পরীক্ষা না নেন, তা হলে আমার কিছু করার থাকে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি প্রয়োজনমতো যৌক্তিক সময়ে বিভাগের একাডেমিক সভা আহ্বান করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। তবে আগামীকাল সোমবার বেলা ১১টায় বিভাগে জরুরি একাডেমিক সভা আহ্বান করেছি।’

উল্লেখ্য, ২২ জুলাই হাইকোর্টের এক নির্দেশে ২৬ জুলাই বিভাগের সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন অধ্যাপক মো. মনজুরুল হাসান। বিভাগের সভাপতি হওয়ার পর তিনি একাডেমিক সভা ডাকেননি। এই অজুহাতে বিভাগের শিক্ষকরা বিভাগের সব ধরনের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে আসছে ।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here