আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশ্রামে সাকিব-মুশফিক!

0
78

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নান্দনিক এক ইনিংস খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। তার ১৪৪ রানের ইনিংসে বাংলাদেশের জয় ১৩৭ রানের ব্যবধানে। নিজের ক্যারিয়ার সেরার পাশাপাশি এশিয়া কাপে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি খেলেছেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

পাঁজরের নয় নম্বর হাড়ে ব্যাথা নিয়ে খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। এই ব্যাথা সারিয়ে ম্যাচ খেলার জন্য ম্যাচের দিন পর্যন্ত অন্তত ২৫টি ব্যাথানাশক ঔষধ খেয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। ঘোষণা দিয়েছেন এই ব্যাথা নিয়েই খেলবেন এশিয়া কাপ ক্রিকেট।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের পর দিন আবারো মাঠে নামতে হবে বাংলাদেশকে। সুপার ফোরে প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কে হবে এটা এখনো নিশ্চিত হয়। সুপার ফোর রাউন্ডে ম্যাচ খেলতে হবে তিনটি। সবকটি ম্যাচ’ই সমান গুরুত্বপূর্ণ। একটু পিছিয়ে পড়লেই ফাইনাল খেলার স্বপ্ন ধূলিস্মাৎ হয়ে যাবে। যার কারণে এই ম্যাচ গুলোতে মুশফিকুর রহিমের মতো গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়ের ভূমিকা অনেক বেশি।

ইতিমধ্যে সুপার ফোর নিশ্চিত হওয়া বাংলাদেশের জন্য আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ নয় আসরের বিবেচনায়। কেননা পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থেকে সুপার ফোরে নাম লেখালে বাড়তি কোন সুবিধা পাবেনা দল। তাই আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে দলের ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দিতে পারে বাংলাদেশ দল।

বিশ্রামের কথা উঠলে প্রথমেই আসে মুশফিকুর রহিমের নাম। কেননা ইনজুরি নিয়ে খেলছেন তিনি। আফগানদের বিপক্ষে ম্যাচের পরদিন আবারো খেলতে নামতে হবে। ইনজুরি নিয়ে টানা দুই ম্যাচ খেললে ঝুঁকির মধ্যে পড়তে পারেন এই ক্রিকেটার। তাই তাকে বিশ্রামে দেয়ার চিন্তা করতে পারে টিম ম্যানেজমেন্ট। একই সাথে সাকিব আল হাসানকে নিয়েও এই চিন্তা করতে পারে দল। দীর্ঘদিন ধরে আঙুলের চোটে ভোগছেন সাকিব। আর এই চোট নিয়েই খেলতে গেছেন এশিয়া কাপে। সুপার ফোরের ম্যাচের আগে ফুরফুরে রাখতে এই দুই ক্রিকেটারকে বিশ্রামে দেয়াই যুক্তিযুক্ত হবে। (এসএনপিস্পোর্টস)