দেশের প্রথম এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে ঢাকায়

0
57

দক্ষ বৈমানিক, বিমান প্রকৌশলী ও মহাকাশ খাতে দক্ষ জনবল তৈরি করতে সরকার ঢাকায় স্থাপন করছে দেশের প্রথম এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়। অ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংসহ বিজ্ঞানের নানা বিষয় পড়ানো হবে এখানে।

চীনের স্যায় ইয়াং অ্যারোস্পেস ইউনিভার্সিটি দেশটির এই বিষয়ক পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে দ্বিতীয়।

পৃথিবীর বেশ কয়েকটি দেশে ব্যবহৃত মিগ টুয়েন্টি ওয়ান ইঞ্জিনের ডিজাইন স্যাং ইংয়া এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের করা। বিমান তৈরি, মেরামতসহ, বৈমানিক, বিমান প্রকৌশলীসহ এই খাতের সবকিছুই হয়ে থাকে এখান থেকে। এখানে লেখাপড়া করছে বাংলাদেশের বেশ কিছু শিক্ষার্থী।

তবে এ বিষয়ে লেখাপড়া করার জন্য এখন আর দেশের বাইরে ছুটতে হবে না শিক্ষার্থীদের। সরকার দেশের প্রথম এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছে ঢাকার আশকোনায়। শতভাগ তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর এ বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য পরিকল্পনা নেয়া, অর্থ বরাদ্দ ও স্থান নির্বাচনের কাজ শেষ হয়েছে। এই পাবলিক বিশ্বদ্যিালয়টির নাম নির্ধারণ করা হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়’।

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর মধ্যে সম্মতি দিয়েছেন।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ বিশ্বদ্যিালয়টির জন্য জমি বরাদ্দ দিয়েছে ১২ একর। শিক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, শুরুতে তিনটি ফ্যাকাল্টিতে মোট ১০টি বিভাগ চালু করা হবে। স্নাতক ও  স্নাকোত্তর প্রোগ্রামের জন্য প্রণয়ন করা হয়েছে আন্তর্জাতিক পাঠ্যসূচি।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ