৮ ব্যাটসম্যান এবং ৩ বোলার নিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ

0
56

সুপার ফোরের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে একাদশে দুই অর্ন্তভুক্তি। পরের দিন ম্যাচ খেলতে নামেন ইমরুল কায়েস। ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন করে ৬ নম্বরে খেলতে নেমে ৭২ রানের অপরাজিত সময় উপযোগী ইনিংস। এই ইনিংসের পর তার বাদ পড়ার কোন শঙ্কা নেই। তবে ব্যাটিং অর্ডারে যে উন্নতি হবে না এটা নিশ্চিত। ইমরুলের খেলার সম্ভবনা ৬ নম্বরেই।

ঐ ম্যাচে আরেকটি পরিবর্তন আনে বাংলাদেশ দল। রুবেল হোসেনের পরিবর্তে দলে আসেন নাজমুল হোসেন অপু। ৮ ওভার বোলিং করে খরচ করেন ২৯ রান দেখা পাননি কোন উইকেটের। প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের বিবেচনায় নিয়ে ম্যাচে অর্ন্তভুক্ত হয়েছিলেন নাজমুল অপু। এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচেও দেখা যাবে নাজমুল অপুকে। টপ অর্ডারের বাবর আজম থেকে শুরু করে লোয়ার মিডল অর্ডারের শাদাব খাঁন পর্যন্ত ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের সারি পাকিস্তানে। এই ব্যাটিং লাইনআপকে আটকে দিতে সাকিব-অপু জুটি বেশ কার্যকরি হয়ে উঠবে। আর ওপেনিং জুটির জন্য আছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

পেস বোলিং লাইনে আছেন মাশরাফী বিন মোর্ত্তাজা ও মুস্তাফিজুর রহমান। তৃতীয় পেসার হিসেবে খেলবেন সৌম্য সরকার। পাকিস্তানের বিপক্ষে একটি সেঞ্চুরি আছে এই ব্যাটসম্যানের। মূলত টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হলেও তৃতীয় পেসার হিসেবে তাকে দিয়ে কাজ চালিয়ে নেবে বাংলাদেশ দল। সৌম্যকে জায়গা করে দিতে দল থেকে বাদ পড়বেন মোহাম্মদ মিথুন। প্রথম ম্যাচে অর্ধশতক হাঁকানো এই ব্যাটসম্যান শেষ তিন ম্যাচে রান করেছেন ২, ৯ ও ১ সমান ১২ রান।

অফফর্মে থাকা উদ্বোধনী জুটির শান্ত-লিটন এই ম্যাচেও ওপেন করবেন বাংলাদেশের ইনিংস। এর বাইরে বাংলাদেশ দলে কোন পরিবর্তন আসবে না। কোন চমক না থাকলে বাংলাদেশের পাকিস্তান মিশন হবে এই একাদশ নিয়েই। তবে সৌম্যর সাথে প্রতিযোগিতায় থাকবেন আরিফুল হক। শেষ পর্যন্ত এগিয়ে থাকার সম্ভবনা আছে সৌম্য সরকারের।

বাংলাদেশ সম্ভাব্য দল: লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিথুন/ সৌম্য সরকার/আরিফুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফী বিন মোর্ত্তাজা, নাজমুল হোসেন অপু এবং মুস্তাফিজুর রহমান। (এসএনপিস্পোর্টস)