ভূমিকম্পের পর ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী সুনামির আঘাত!

0
76

ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর এবার প্রায় সাড়ে ছয় ফুট উচ্চতার সুনামি আঘাত হেনেছে। শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় দেশটির মধ্যাঞ্চলের দ্বীপ সুলাবেসিতে শক্তিশালী এ সুনামি আঘাত হানে।

টুইটারের একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, বিশাল উচ্চতার সুনামি ওই এলাকার স্থাপনাগুলো মুহূর্তেই ধ্বংস করে দিচ্ছে। এর আগে বিকেল ৫টা ২ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় ৪টা ২ মিনিট) সুলাবেসির পালু শহরের ৭৮ কিলোমিটার উত্তরে ৭.৫ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এরপর দেশটিতে সুনামি আঘাত হানতে পারে বলে সতর্কও করা হয় সকলকে।

শুক্রবার তীব্র ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে ইন্দোনেশিয়ার বিস্তীর্ণ এলাকা। কেন্দ্রস্থল সুলাবেসি দ্বীপ। কিছুক্ষণের মধ্যেই সুনামি সতর্কতা জারি করে উপকূল এলাকার বাসিন্দাদের নিরাপদ দূরত্বে সরে যেতে বলা হয় বাসিন্দাদের। ‘ইন্দোনেশিয়ান এজেন্সি ফর মেটিওররোলজি, ক্লাইমেটোলজি অ্যান্ড জিওফিজিক্স’-এর তরফে জানানো হয়েছিল, সমুদ্রের ঢেউয়ের উচ্চতা হবে কম করে ৩ ফুট।

মার্কিন জিওলজিক্যাল সার্ভে প্রথমে জানিয়েছিল, কম্পনের মাত্রা ৭.৭। তবে পরে জানানো হয়, রিখটার স্কেলে ৭.৫ তীব্রতার কম্পন ধরা পড়েছে। ইন্দোনেশিয়ার পাশাপাশি জাপানেও জারি করা হয়েছে সুনামি সতর্কতা। পরে ‘ইন্দোনেশিয়ান এজেন্সি ফর মেটিওররোলজি, ক্লাইমেটোলজি অ্যান্ড জিওফিজিক্স’-এর তরফে জানানো হয়, ওই ভূকম্পের পরেই এ দিন রিখটার স্কেলে ৬.১ মাত্রার আরও একটি ভূকম্প হয় একই এলাকায়।

ভূমিকম্পপ্রবণ দেশগুলির মধ্যে প্রথম সারিতেই রয়েছে ইন্দোনেশিয়া। মাঝেমধ্যেই কেঁপে উঠে এই দ্বীপ রাষ্ট্র। ২০০৪ সালে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প এবং তার জেরে সুনামি আছড়ে পড়ে অন্তত ১৩টি দেশে। সব দেশ মিলিয়ে দু’লক্ষেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। শুধু ইন্দোনেশিয়াতেই মৃতের সংখ্যা ছিল এক লক্ষ ২০ হাজার।