হাতীবান্ধায় বোমা মেশিন দিয়ে বালু ও পাথর উত্তোলনে হুমকিতে বিদ্যালয়

0
47

শাহিনুর ইসলাম প্রান্ত, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটে হাতীবান্ধা উপজেলার সির্ন্দুনা ইউনিয়নের বালাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উওর-পশ্চিমে বোমা মেশিন দিয়ে বালু ও পাথর উত্তোলনের ফলে হুমকিতে বিদ্যালয়।

নদীর ভাঙ্গন রক্ষার্থে যখন সরকার নানা উদ্যোগ গ্রহণ করছে ঠিক তখনই তিস্তা নদীর কুলে বোমা মেশিন দিয়ে বালু ও পাথর তুলে তিস্তা নদীর ভাঙ্গনকে উসকিয়ে দচ্ছিে এক দল অবধৈ বালু ব্যবসায়ী। এতে করে হুমকির মুখে পড়েছে বিদ্যালয়সহ আসে পাশরে আবাদি জমি।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সির্ন্দুনা ইউনিয়নের বালাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উওর-পশ্চিমে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ওই এলাকার সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য লুৎফর রহমানের সহযোগিতায় ময়েজ আলী নামে এক ব্যক্তি বোমা মেশিন দিয়ে বালু ও পাথর উত্তোলন করছেন। ফলে বালু ও পাথর তোলার কারণে ওই বিদ্যালয়টিসহ শত শত আবাদি জমি ও বসত বাড়ি হুমকির মুখে পড়েছে।

এ বিষয়ে বালু উত্তোলনকারী ময়েজ আলী জানান, ‘স্থানীয় সির্ন্দুনা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরল আমিনের সাথে কথা বলে তার অনুমতি নিয়ে আমি বাড়ি করার জন্য মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করছি।’ তবে বোমা মেশিন দিয়ে বালু ও পাথর উত্তোলনের ফলে তিস্তা নদীর ভাঙ্গন বেড়ে যাচ্ছে এ প্রশ্নের জবাবে তিনি কোনো মন্তব্য করেন নি।

সির্ন্দুনা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরল আমিন বলেন, ‘আমাকে বলেছে নদীর মধ্যস্থান থেকে তিনি বালু উত্তলন করে বসত বাড়ি ভরাটের জন্য কিছু বালু তোলার কথা বলেছে। কিন্তু সে যদি নদীর কিনার থেকে বালু বা পাথর তোলে তাহলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এ সম্পর্কে হাতীবান্ধা থানার ওসি ওমর ফারুক সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, ‘ বিষয়টি আমার জানা নেই। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’