ছাত্রকে হাত পা বেঁধে পিটিয়ে আহত করেছে প্রিন্সিপাল!

0
50

নারায়ণগঞ্জ বন্দর প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ বন্দর ফরাজিকান্দা মাদরাসাতুল কুরআনুল হাদিসের প্রিন্সিপাল মো: মোজাহিদ হোসেন নবম শ্রেনীর ছাত্র জিহাদুল ইসলাম(১৫)কে হাত পা বেধে পিটিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত মঙ্গলবার ফরাজিকান্দা মাদরাসাতুল কুরআনুল হাদিসে এঘটনা ঘটে বলে যানতে পারা যায়।

এব্যাপারে আহত ছাত্র জিহাদুল ইসলামের পরিবার সাংবাদিকদের বলেন, মাদরাসা থেকে এক দিনের ছুটি নিয়ে অনু-পস্থিত থাকে আর সেই অনুপস্থিতের কারনে হাত পা বেঁধে এলোপাথারি ভাবে ১২, ১৩টা বাড়ি মারে এবং প্রতিটি বাড়ির সাথে শরীরের চামড়া উঠে আসে। এত নির্মম ভাবে কোন শিক্ষক তার ছাত্রকে মারতে পারে আমাদের জানা ছিলোনা। অমানবিক ভাবে পিটানোর ফলে আমরা মাদরাসায় গিয়ে প্রিন্সিপালকে ধরি। প্রিন্সিপালকে ধরার কারনে মাদরাসার কমিটির লোক আমাদের টাকা পয়সা দিয়ে সমাধান করে দিবে বলে টিওনোর অফিসে নিয়ে লিখিত নেয়।

এব্যাপারে ফরাজিকান্দা মাদরাসাতুল কুরআনুল হাদিসের সাধারন সম্পাদক হাজী গোলাপ হোসেনের সাথে আলাপ কালে বলেন, শিক্ষার্থীকে পিটানোর ঘটনা সত্য। প্রিন্সিপাল নতুন আসছে বুঝে উঠতে পারেনি আমরা বন্দর উপজেলার নির্বাহী অফিসার পিন্টু বেপারীর কাছ থেকে সময় নিয়ে এসেছি। প্রিন্সিপালের কাছ থেকে কিছু ক্ষতিপূরন নিয়ে ছাত্রকে দিয়ে দেব।

এব্যাপারে বন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিন্টু বেপারীর সাথে আলাপ কালে বলেন, প্রিন্সিপাল যেটা করেছে সেটা আইন গত অপরাধ আমি আইন গত ব্যবস্থা নিতে চেয়েছিলাম কিন্তু বাদী অভিযোগ দিতে রাজি হয়নি। এব্যাপারে বন্দর থানার ওসি এ কে এম শাহিন মন্ডলের সাথে আলাপকালে বলেন, ছাত্র পিটানোর সংবাদ আমার কাছে এসেছে। কিন্তু বাদী কোন অভিযোগ করেনি তবুও আমি আমার ফোর্স পাঠিয়েছি ঘটনা জানতে যদি ঘটনা সত্য হয় তাহলে আইন গত ব্যবস্থা নিবো।