ধর্ষণের অপবাদ, পর্তুগাল দল থেকে বাদ রোনাল্ডো!

0
60

ফুটবল দুনিয়ায় শোরগোল৷ পর্তুগাল দল থেকে বাদ রোনাল্ডো! মাথার উপর ঝুলছে ধর্ষণের অপবাদ৷ তার মধ্যেই এবার পর্তুগাল দল থেকে বাদ পড়লেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডা৷ অক্টোবরে পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে উয়েফা নেশনস লিগের দ্বিতীয় ম্যাচে ও স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে একটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচের দলে নাম নেই সিআর সেভেনের৷

পর্তুগাল কোচ স্যান্তোস রোনাল্ডোর জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া নিয়ে জানিয়েছেন, ‘এটি তাঁর, রোনাল্ডো এবং পর্তুগাল সকার ফেডারেশন প্রধানের সম্মিলিত ভাবে গৃহীত সিদ্ধান্ত।’ এমনকী নভেম্বরে আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টটির পরের রাউন্ডেও রোনাল্ডোকে রাখা হবে না বলে সাফ জানিয়েছেন পর্তুগাল কোচ। যদিও এবিষয়ে সবিস্তারে কিছু বলতে চাননি স্যান্টোস। রোনাল্ডোর মনের অবস্থা নিয়েও এবিষয়ে কুলুপ এঁটেছেন বর্ষীয়ান এই কোচ।

অভিযোগকারিণী মহিলা দাবী করেছেন ধর্ষণের পর মোটা অঙ্কের টাকা দিয়ে তাঁর মুখ বন্ধ করা হয়েছিল৷ নয় বছর আগে আউট অফ দ্য কোর্ট সেই বোঝাপড়া নিয়েই এখন প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন মহিলা৷ রোনাল্ডো অবশ্য পুরো ঘটনাই অস্বীকার করে নিজেকে নির্দোষ বলে জানিয়েছেন৷ ঘটনায় দুজনের সম্মতি ছিল বলেই রোনাল্ডোর আইনজীবী বিবৃতি দিয়েছেন৷

এদিকে জাতীয় দল থেকে রোনাল্ডোর বাদ পড়ার ঘটনায় স্বভাবতই হতাশ ক্রিশ্চিয়ানোর অনুরাগীরা। এর আগে বিশ্বকাপ পরবর্তী দু’টি ম্যাচের জন্য রোনাল্ডোকে পর্তুগাল স্কোয়াডে রাখেননি স্যান্টোস। মূলত সেক্ষেত্রে দলের জুনিয়র ফুটবলারদের দেখে নিতে চেয়েছিলেন তিনি।

এখন দেখার কেরিয়ারের প্রায় সায়াহ্নে পৌঁছে এই ঘটনা কতটা প্রভাব ফেলে সিআরসেভেন’র উপর। দেশের জার্সি গায়ে ১৫৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে প্রতিনিধিত্ব করেছেন ক্রিশ্চিয়ানো। ৮৫ গোল করে দেশের সর্বকালের সেরা গোলস্কোরার তিনিই।