জাতীয় ক্রিকেট লিগে সাদিকুরের সেঞ্চুরি, আরাফাত সানির ৭ উইকেট

0
22

জাতীয় ক্রিকেট লিগের নতুন মৌসুমের দ্বিতীয় রাউন্ডে প্রথমদিন ছিল বোলারদের। দলীয় বোলিং নৈপুণ্যের দিনে ৩৭ উইকেট তুলে নিয়েছেন চারটি দলের বোলাররা। এর মাঝে পাঁচ উইকেটের মাইলফলক কেবল একজনের, সেঞ্চুরিও পেয়েছেন একজন।

ঢাকা মেট্রোর বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানি নিয়েছেন ৭ উইকেট। আর ব্যাটসম্যানদের ধুঁকতে থাকার দিনে চট্টগ্রাম বিভাগের ওপেনার সাদিকুর রহমান তুলে নিয়েছেন দিনের একমাত্র সেঞ্চুরিটি।

বরিশাল-খুলনা
খুলনায় টায়ার-১ এর ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে বরিশাল বিভাগ ও খুলনা বিভাগ। শুরুতে ব্যাট করে অবশ্য ছোট ছোট ইনিংসে লড়াই জমিয়ে রেখেছে বরিশাল। ৮ উইকেটে ২৬৬ রান তুলে প্রথমদিন শেষ করেছে কামরুল ইসলাম রাব্বির দল।

ক্রিজে আসা দশ ব্যাটসম্যানের নয়জনই দুঅঙ্কের দেখা পেয়েছেন। তবে ফিফটি পাননি কেউই। নুরুজ্জামান সম্ভাবনা জাগিয়ে ৪৮ রানে অপরাজিত আছেন। ওপেনার শাহরিয়ার নাফিস ৪১ রানে ফিরেছেন। বাকিদের মধ্যে সোহাগ গাজী ৩৮ এবং শামসুল ইসলামের ৩০ রান বলার মতো।

খুলনার হয়ে অভিজ্ঞ আব্দুর রাজ্জাক ৩টি, আর ২টি করে উইকেট নিয়েছেন আল-আমিন হোসেন ও মেহেদী হাসান।

রংপুর-রাজশাহী
টায়ার-১ এর আরেক ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে মাত্র ১৫১ রানে গুটিয়ে গেছে রংপুর বিভাগ। রাজশাহী বিভাগ পরে বিনা উইকেটে ৯৯ রান তুলে প্রথমদিন শেষ করেছে।

রংপুরের হয়ে নাঈম ইসলামের ৬০ রানই বলার মতো কেবল। লিটন দাস ফিরেছেন ১৭ রানে।

রাজশাহীর হয়ে ফরহাদ রেজা ও মোহর শেখ ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন। শফিউল ইসলামের ঝুলিতে গেছে ২ উইকেট।

পরে নাজমুল হোসেন শান্ত ৩৭ এবং মিজানুর রহমান ৫৯ রান তুলে অবিচ্ছিন্ন থেকে দিন শেষ করেছেন। রাজশাহীর বড় লিডের ইঙ্গিতে দ্বিতীয়দিনে মাঠে নামবেন তারা।

সিলেট-চট্টগ্রাম
কক্সবাজারে টায়ার-২ এর ম্যাচে সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের লড়াইয়ে প্রথমদিনে তিনশর কাছে সংগ্রহ গড়েছে স্বাগতিকরা। বন্দরনগরীর দলটি ৯ উইকেটে ২৮২ রান তুলে প্রথমদিন শেষ করেছে।

ওপেনিংয়ে সাদিকুর রহমান ১০৬ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলেছেন। ৯ চারে ১৯০ বলের ইনিংস তার। বাকিদের মধ্যে ইয়াসির আলি ৮৪ ও অধিনায়ক মুমিনুল হকের ৪৩ বলার মতো।

সিলেটের হয়ে শাহানুর রহমান ৩টি, আবু জায়েদ ও নাবিল সামাদ ২টি করে উইকেট নিয়েছেন।

ঢাকা-মেট্রো
ফতুল্লায় টায়ার-২ এর ম্যাচে দুই ঢাকা, ঢাকা বিভাগ ও ঢাকা মেট্রোর লড়াইও জমে ওঠার আমেজ। প্রথমদিনে ঢাকা গুটিয়ে গেছে ২০৬ রানে। জবাব দিতে নেমে ঢাকা মেট্রো কোনো উইকেট না হারিয়ে ২৬ রান তুলে দিন শেষ করেছে।

ঢাকার ইনিংসে তাইবুর রহমান ৮৮ ও রনি তালুকদারের ৩০ ছাড়া বলার মতো ইনিংস নেই।

ইনিংস গড়তে দেননি আসলে মেট্রোর আরাফাত সানি। এই অর্থডক্স স্পিনার ২৪ ওভার বল করে ৫৭ রানে ৭ উইকেট নিয়েছেন। প্রথম রাউন্ডে দুই ইনিংস মিলিয়ে নিয়েছিলেন ৭ উইকেট। সানির দিনে মোহাম্মদ আশরাফুলের ঝুলিতে গেছে ২ উইকেট।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here