বিশ্বের দীর্ঘতম সেতু উদ্বোধন করেন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং

0
31

খুলে গেল বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতু৷ আজ, মঙ্গলবার চিনের ঝুহাই শহরে এই সেতুর উদ্বোধন করেন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। বুধবার থেকে যান চলাচল করবে এই সেতুতে৷ ৫৫ কিলোমিটার বা ৩৪ মাইল দীর্ঘ এই সেতু চিনের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে যুক্ত করবে হংকং-ম্যাকাওকে৷ আগে যে পথ অতিক্রম করতে সময় লাগত তিন ঘণ্টা, এখন মাত্র আধ ঘণ্টায় অতিক্রম করা যাবে সেই পথ।

সূত্রের খবর, সেতুটি নির্মাণ করতে ব্যয় হয়েছে প্রায় বিশ বিলিয়ন ডলার বা দুহাজার কোটি ডলার। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি করা হয়েছে এই সেতু৷ অতিশক্তিশালী ঝড় কিংবা ভূমিকম্পও টলাতে পারবে না এই সেতুটিকে৷ ভূমির পাশাপাশি, সাগরের অনেকটা অংশ রয়েছে জলের তলায়৷ টানেল তৈরি করে জলের তলা দিয়ে যান চলাচলের ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ দুই অংশের মধ্যে সংযোগ স্থাপনের জন্য তৈরি করা হয়েছে একটি কৃত্রিম দ্বীপ। হংকং, ম্যাকাও-সহ আরও ন’টি শহরকে যুক্ত করার লক্ষ্যে এই সেতু নির্মাণ করেছে চিন।

জানা গিয়েছে, বিশেষ অনুমতির মাধ্যমেই এই সেতু দিয়ে যান চলাচল করতে পারবে৷ দিতে হবে টোল৷ চিনা প্রশাসনের দাবি, দিনে প্রায় নয় হাজারেরও বেশি যানবাহন এই সেতু দিয়ে যাতায়াত করবে। এই সেতু নিয়ে বিতর্কও কম নেই৷ ২০০৯ থেকে নির্মাণ শুরুর পর বারবার পিছিয়েছে সেতুটির কাজ৷ ফলে বেড়ে গিয়েছে খরচ৷ নির্মাণকালে নিহত হয়েছেন ১৮ জন শ্রমিক।

পাশাপাশি, এই সেতু নির্মাণের মাধ্যমে হংকং-এর উপর আরও প্রভাব বিস্তার করল চিন, এমনই মনে করছেন আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা৷ পাশাপাশি, এই সেতু ব্যবহারে হংকং-এর নাগরিকদের উপরে যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তা নিয়েও জমছে ক্ষোভ৷ অনেকেই বলছেন, এই সেতু নির্মাণে হংকং-এর নাগরিকদেরও করের টাকা ব্যবহার করা হয়েছে৷ কিন্তু ব্যবহারের ক্ষেত্রে তাঁদের পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়নি৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here