আধুনিক সংবাদপত্র ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার কীর্তি পুরুষ মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী

0
101

নিজের যোগ্যতা ও মেধা দিয়ে জীবনকে যেমন বদলে দেওয়া যায় ঠিক মেধা ও যোগ্যতার সঠিক প্রয়োগে সমাজকেও বদলে দেয়া যেতে পারে। সাম্প্রদায়িকতার ঊর্ধ্বে উঠে অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে লালন করে সমকালীন সময়ে মওলানা মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী যে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তা আজ সমকালীন সমাজে বিরল।

তিনি একাধারে সংবাদপত্র ও শিক্ষা বিস্তারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে কালোত্তীর্ণ পুরুষে পরিণত। সমকালীন প্রেক্ষাপটে বলা যায়, আধুনিক সংবাদপত্র ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার কীর্তি পুরুষ মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী। চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ইউনিটি (সি আর ইউ) আয়োজিত মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী স্মরণ সভায় বক্তারা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

চট্টগ্রামে সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ের বৃহত্তর সংগঠন চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ইউনিটি (সিআরইউ)’র উদ্যোগে গতকাল ২৪ অক্টোবর বিকাল ৫ টায় নগরীর মোমিন রোডস্থ নিজস্ব কার্যালয়ে সংগঠনের সভাপতি কিরণ শর্মার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মোঃ মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক কাজী মোঃ হুমায়ুন কবির, অর্থ সম্পাদক মোঃ নুরুল কবির, দপ্তর সম্পাদক মোঃ আব্দুল করিম সেলিম। সম্মানিত অতিথি ছিলেন বিজয় ৭১’র সাধারণ সম্পাদক ডা. আর কে রুবেল।

সভায় বক্তারা বলেন, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে সাহিত্য চর্চা সমাজ সংস্কৃতি ও শিক্ষা বিস্তারের আন্দোলনে বিপ্লবী ভূমিকা রেখেছেন মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী। কর্ম ও কীর্তিতে একজন কালজয়ী ব্যক্তিত্ব তিনি।

বক্তারা আরো বলেন, সৎ সাহসিকতা ও মানসিকতা নিয়ে তিনি সমাজে যে কাজ করেছেন তা বর্তমান সমসাময়িক সময়ে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত। সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদুল আজিজ এর সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাংস্কৃতিক সম্পাদক অরুন নাথ, সদস্য ডা. বরুণ কুমার আচার্য বলাই, স ম জিয়া-উর- রহমান, মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, মোহাম্মদ শেখ সেলিম,মোঃ কুতুব উদ্দিন রাজু, রাজীব চক্রবর্তী, কাজী মাহাদী প্রমূখ।