দৌলতপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ ও আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে শাহাদাত গ্রেফতার !

0
65

মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের পরে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে খালু শাহাদাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) রাতে ধামরাইয়ের বাথুলী এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ঘাতক খালু শাহাদাতকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ জানায়, দৌলতপুর থানার এসআই আবু জাফর হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়েথেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতে ধামরাইয়ের বাথুলী এলাকা অভিযান চালিয়ে ঘাতক খালু শাহাদাতকে গ্রেফতার করে বুধবার (২৪ অক্টোবর) দুপুর ১টার দিকে কোর্টে পাঠানো হয়।

পুলিশ হেফাজতে থাকা অবস্থায় শাহাদাৎ আখিকে ধর্ষণ করে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করার বিষয়টি স্বীকার করেছে।

উল্লেখ্য, দৌলতপুর উপজেলার চকমিরপুর গ্রামে গভীর নলকূপের পরিত্যক্ত ঘর থেকে শনিবার (২০ অক্টোবর) রাতে আখির আগুনে পোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আখির বাড়ি মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার দরগ্রাম ইউনিয়নের তেবাড়িয়া গ্রামে।

আঁখির জন্মের পূর্বেই তার বাবা আবুল হোসেন মারা যান। এরপর থেকে মা সেলিনা বেগমের সঙ্গে নানাবাড়ি সাটুরিয়া উপজেলার দিঘুলিয়া গ্রামে থাকতেন। সে স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় লেখাপড়া করত। সেলিনা তার ২ বোনের সঙ্গে সাভারের হেমায়েতপুরে একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। সেখানেই একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। কয়েক দিন আগে আঁখিকে নিজের কাছে এনে রেখেছিলেন সেলিনা।

গত বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) বিকাল ৩টার দিকে দিঘুলিয়ার উদ্দেশে আঁখিকে তার খালু শাহাদৎ হেমায়েতপুর থেকে তাকে বাসে তুলে দেন। এরপর থেকে সে নিখোঁজ ছিল।

মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম/বাংলাটপনিউজ২৪.কম