গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র রক্ষা করা শেখ হাসিনার দায়িত্ব-কাদের সিদ্দিকী

0
31

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পিএইচএ ভবন ভাঙচুর, লুটপাট ও শিক্ষার্থীদের পিটুনির নিন্দা জানিয়েছেন আবদুল কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, প্রতিষ্ঠানটি গড়ে উঠেছে বঙ্গবন্ধুর সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতায়। এটি রক্ষা করা তার কন্যা শেখ হাসিনার দায়িত্ব।

আজ শনিবার দুপুরে সাভারে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পিএইচএ ভবনের হামলার সময় পিটিয়ে হাত ভেঙে ফেলা লিমনকে দেখতে যান কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের নেতা।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শন করে আমি খুবই মর্মাহত। এখানে মেয়েদের যে আকুতি শুনলাম, স্বাধীন দেশে মেয়েরা এমন অসহায় হবে এটা ভাবা যায় না। এখানে যদি কোন বিরোধ থেকে থাকে সেটি শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা যেত। যারা এ গাছগুলো কেটেছে তাদের কমপক্ষে ১২ বছরের জেল হওয়া উচিত।’

গত ৯ অক্টোবর বেসরকারি টেলিভিশন সময় টিভিতে এসে সেনাপ্রধান আজিজ আহমদকে নিয়ে অবান্তর কথা বলেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী। সেনা সদরদপ্তর থেকে প্রতিবাদলিপি আসার পর সংবাদ সম্মেলন করে দুঃখ প্রকাশ করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেয়া সাবেক চীনপন্থী বাম নেতা। তবে সেদিনও তিনি আরেকটি ভুল তথ্য দেন। এরপর সেনা সদরদপ্তর থেকে সাধারণ ডায়েরি হয় এবং সেটি রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে।

এরপর জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও জমি দখল চেষ্টার তিনটি এবং মাছ ও ফল চুরির মামলা করেছেন পাঁচ জন ব্যক্তি। পাশাপাশি শুক্রবার পিএইএ ভবন দখলের চেষ্টায় হয় হামলা। সেখানে কটন টেক্সটাইল ক্রাফটস নামে একটি প্রতিষ্ঠানের নাম ঝুলিয়ে দেয়া হয়।

ভবনটি ভাঙচুর ছাড়াও মালামাল লুট, হোস্টেলে থাকা নারী শিক্ষার্থীদের মারধর ও গাছপালাও কেটে ফেলে দৃর্বৃত্তরা। বাঁধা দিতে গেলে তাদের বেশ কয়েক জন শিক্ষার্থীকে মারধরও করা হয়। কিন্তু এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানায় অভিযোগ করতে গেলে বিষয়টি আমলে নেয়নি পুলিশ।

জাফরুল্লাহর প্রতিষ্ঠান গড়ার ইতিহাস তুলে ধরে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘এই প্রতিষ্ঠান এক দিনে গড়ে ওঠেনি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু প্রথম এখানকার জমি দিয়েছেন, এর পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন। তার মেয়ে যদি এর সম্মান রাখতে না পারে সেটা মেয়ের শেখ হাসিনা) কাজ হবে, আমাদের না।’

এর আগে গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে গিয়ে লিমনসহ আহত অন্যান্যদের সাথে কথা বলেন কাদের জনতা লীগ নেতা। এ সময় তার সঙ্গে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং গণবিশ^বিদ্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here