নির্বাচনে সরকারি হস্তক্ষেপ নয়, সভা-সমাবেশে বাধা নেই : প্রধানমন্ত্রী

0
92

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠিত হবে। সরকার নির্বাচনে কোন প্রকার হস্তক্ষেপ করবে না।’

বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) রাতে গণভবনে ১৪ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সংলাপ শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের উদ্ধৃতি টেনে এসব কথা জানান।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের বলেছেন, নির্বাচন কমিশনে সরকার কোন প্রকার হস্তক্ষেপ করবে না। বরং নির্বাচন কমিশন যদি চায় তাহলে সহযোগিতা করা হবে। সরকারের পক্ষ থেকে আমরা অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের আশ্বাস দিচ্ছি। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন স্বাধীন ও কর্তৃত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।’

তিনি বলেন, ‘ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমরা এই প্রযুক্তির ব্যবহারকে সমর্থন করি। তবে নির্বাচন কমিশন আগামী নির্বাচনে সীমিত আকারে ইভিএম ব্যবহার করবে।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি টেনে ফের ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী তাদের পরিস্কার বলে দিয়েছেন সভা, সমাবেশ ও মতপ্রকাশে কোন বাধা দেয়া হবে না। তবে কেউ যেন রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ না করেন। ঢাকার ব্যাপারে বলেছেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে একটি কর্ণার করে দেয়া হবে, যেখানে ভাড়ার বিনিময়ে সবাই সমাবেশ করতে পারবেন। এই টাকাটা নেয়া হবে সমাবেশ পরবর্তী সময়ে পরিচ্ছন্নতার জন্য।’

বিদেশী পর্যবেক্ষকদের নির্বাচন পর্যবেক্ষণে প্রধানমন্ত্রীর কোন আপত্তি নেই বলে জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। এছাড়াও ছোট পরিসরে আলোচনা করতে চাইলে যেকোন সময় প্রধানমন্ত্রীর নিকট তারা আসতে পারেন। নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে কোন আলোচনা হয়নি বলেও জানান আওয়ামী লীগের এই শীর্ষ নেতা।

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ