বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সমানে সমান

0
21

সিলেটে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের টেস্ট ভেন্যু হিসেবে অভিষেকের প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশ বা জিম্বাবুয়ে কাউকেই এগিয়ে রাখা যাচ্ছে না। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর নেতৃত্বে টাইগাররা তুলে নিয়েছে ৫ উইকেট। অন্যদিকে অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও শন উইলিয়ামসের হাফসেঞ্চুরির কল্যাণে স্কোরবোর্ডে ২৩৬ রান জমা করেছে জিম্বাবুয়ে।

শনিবার প্রথম সেশনে ৪৭ রানের মধ্যে বাংলাদেশ ফিরিয়ে দিয়েছিল সফরকারীদের দুই ব্যাটসম্যানকে। দুটি উইকেটই নেন বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। এরপর তিনটি ভালো জুটি গড়ে বাংলাদেশকে পাল্টা জবাব দেয় জিম্বাবুয়ে। তারা গড়ে যথাক্রমে ৩৮, ৪৪ ও ৭২ রানের জুটি। ২০১ রানে পঞ্চম উইকেট হারানোর পর বাকি সময়টা নির্বিঘ্নে কাটান দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান পিটার মুর ও রেগিস চাকাভা। তাদের অবিছিন্ন জুটির সংগ্রহ ৩৫ রান।

জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক মাসাকাদজা ১০৫ বলে ৫২ রান করে শিকার হন বাংলাদেশের একাদশের একমাত্র পেসার আবু জায়েদ রাহীর। সিকান্দার রাজাকে ফিরিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম উইকেটের দেখা পান অভিষিক্ত নাজমুল ইসলাম অপু। ফিফটি পূরণ করে বাংলাদেশের বোলারদের ওপর ছড়ি ঘোরাচ্ছিলেন উইলিয়ামস। ওয়ানডে সিরিজে দারুণ খেলা এই বাঁহাতি ফর্ম ধরে রেখে সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েছিলেন। তৃতীয় সেশনে তাকে আউট করে বাংলাদেশ শিবিরে স্বস্তি এনে দেন পার্ট টাইমার মাহমুদউল্লাহ।

১৭৩ বলে ৮৮ রান করা উইলিয়ামসের বিদায়ে ভাঙে উইলিয়ামস-মুরের ৭২ রানের জুটি। প্রথম দিনে টাইগারদের সফল বোলার তাইজুল ২ উইকেট পান ৮৬ রানে। একটি করে উইকেট নেন আবু জায়েদ, অপু ও মাহমুদউল্লাহ। আরেক অভিষিক্ত পেস অলরাউন্ডার আরিফুল হক ৪ ওভার বল করে ৭ রান দিলেও থাকেন উইকেটশূন্য। জিম্বাবুয়ের রানের চাকা আটকে রাখা মেহেদী হাসান মিরাজও উইকেটের দেখা পাননি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস : ২৩৬/৫ (৯১ ওভারে) (মাসাকাদজা ৫২, চারি ১৩, টেইলর ৬, উইলিয়ামস ৮৮, রাজা ১৯, মুর ৩৭*, চাকাভা ২০*; আবু জায়েদ ১/৬১, তাইজুল ২/৮৬, আরিফুল ০/৭, মিরাজ ০/৩৭, নাজমুল ১/৪২, মাহমুদউল্লাহ ১/২)

#বাংলাটপনিউজ/আরিফ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here