হত্যার বিচারের দাবিতে আদিবাসী ছাত্র পরিষদের মানববন্ধন

0
33

আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে আজ ৬ নভেম্বর ২০১৮ তারিখ সকাল ১১.০০টায় গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্মের আদিবাসী-বাঙালিদের উপর তিন সাঁওতাল হত্যা , অগ্নিসংযোগ, লুটপাট, ভাংচুর, নির্যাতন ও ক্ষতিপূরণসহ বিচারের দাবিতেÍ রাজশাহী সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নকুল পাহানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক তরুন মুন্ডা, সহ-সাধারণ সম্পাদক আপেল মুন্ডা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ পাহান, কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক অনিল রবিদাস, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক প্রশান্ত মিনজ্, মলি বিশ্বাস, শিউলি মাহাতো প্রমুখ।

এছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ রাজশাহী জেলার সভাপতি বিমল রাজোয়াড়, রাজশাহী মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক আন্দ্রিয়াস বিশ্বাস, আদিবাসী যুব পরিষদ রাজশাহীর যুগ্ম-আহবায়ক উপেন রবিদাস।

সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও ন্যাপ রাজশাহী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিরুর রহমান খান আলম, বাংলাদেশে মহিলা পরিষদ রাজশাহী জেলা শাখার সভাপতি কল্পনা রায়, জনউদ্যোগ রাজশাহীর ফেলো জুলফিকর আহমেদ গোলাপ প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গাইবান্ধায় পুলিশের গুলিতে তিন সাঁওতাল শ্যামল হেমব্রম, রমেশ টুডু ও মঙ্গল মার্ডির হত্যার ২ বছর পার হয়ে গেলেও হত্যাকান্ডের বিচার হয় নি। অগ্সিংযোগ, উচ্ছেদ ও হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার গুলো এখনো ক্ষতিপূরন পায় নি। অধিগ্রহনকৃত তাদের বাপ-দাদার জমি এখনো ফেরত পায় নি।বাগদাফার্ম মিল কতৃপক্ষ ও হত্যাকারীরা প্রতিনিয়ত আদিবাসীদের সন্ত্রাসী হামলার হুমকি ও ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে।

সাঁওতাল হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আসামীদের সরকার বা প্রশাসন এখনও গ্রেপ্তার করতে পারে নি। সাঁওতালদের ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগকারী পুলিশ প্রশাসনকে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে পারে নি সরকার। এখনো তারা খোলা আকাশের নিচে দিনানিপাত করছে। তাদের পুর্নবাসনের কোন উদ্যোগ সরকার এখনো নিতে পারে নি।

এই হামলার মুল হোতা গবিন্দগঞ্জের সংসদ সদস্য আবুল কামাল আজাদ ও সাপমারা ইউপি চেয়ারম্যান শাকিল আকন্দ বুলবুলকে সরকার গ্রেপ্তার করতে ব্যর্থ হয়েছে। আদিবাসীরা মানববন্ধন থেকে তিন সাঁওতাল হত্যার বিচার, ক্ষতি পুরন সহ সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম কর্তৃক কেড়ে নেওয়া ১৮৪২.৩০ একর জমি ফেরতের দাবি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here