আমায় কেউ ভালোবাসে না : জাহ্নবী

0
39

করণ জোহরের সিজন সিক্স-এ এসে দাদা অর্জুন কপূরের কাছে হেরে গিয়ে চোখে টলমল জল নিয়ে এমন অভিমান প্রকাশ করলেন শ্রীদেবী-বনি কপূরের বড়ো মেয়ে জাহ্নবী কপূর। দিদি অনশুলা নাকি অর্জুনকে জিতিয়ে দেওয়ার জন্য জানুকে ডিচ করেছেন। মনে করছেন জাহ্নবী। এরপরে অভিমান হওয়াই তো স্বাভাবিক মা-হারা মেয়ের!

‘কফি উইথ করণ’-এর সিজন ৬-এ দুই প্রতিযোগী হিসাবে এসেছিলেন অর্জুন আর জাহ্নবী কপূর। সিজনের একটি স্পেশ্যাল রাউন্ডে দুই প্রতিযোগীকেই তাঁদের জানা একজনকে ফোন করে বলাতে হবে, ‘হে করণ, ওয়াটসআপ?’ যিনি ফোন করে এই কথাটি আগে বলাতে পারবেন, তিনিই জিতে যাবেন। সেই অনুসারে এই রাউন্ডে জাহ্নবী ফোন করেন দিদি অনশুলাকে। ফোনের কানেকশনের কোনও সমস্যায় অনশুলা জাহ্নবীর কথা কিছুই বুঝতে পারছিলেন না। এমনটাও হতে পারে, অনশুলা চাইছিলেন না তাঁর দাদা হেরে যাক। সেকারণেই অনশুলা ‘হে করণ, ওয়াটসআপ?’ বলেননি।

অন্যদিকে, অর্জুন বাবা বনি কপূরকে ফোন করলে তিনি সহজেই বলে দেন সেকথা। এভাবেই সেই রাউন্ডে অর্জুনের কাছে হেরে যান জাহ্নবী। মনখারাপ করে অনশুলাকে শ্রীদেবী কন্যা জাহ্নবী সরাসরি বলেন, তিনি সত বোন বলেই এই আচরণ অনশুলার। এখন মনে হচ্ছে, পরিবারের কেউ তাঁকে ভালোবাসে না! যদিও পরে অনশুলা জাহ্নবীকে জানান, নেটওয়ার্ক সমস্যার জন্য তিনি কিচ্ছু শুনতে পাননি। ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন, জানু তাঁর প্রাণ।