শরীয়তপুরে বিএনপি বাদে আ.লীগের অপুসহ ৫ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা

0
67

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শরীয়তপুর-১ (পালং-জাজিরা) আসনে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেনঅপু। সোমবার দুপুরে শরীয়তপুর-১ আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ইকবাল হোসেন অপু জেলার আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহেরের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

এ ছাড়াও আরও ৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা করেছেন। তারা হলেন ইসলামী আন্দোলনের শরীয়তপুর-১ আসনে মো. তোফায়েল আহমেদ, শরীয়তপুর-২ আসনে হাফেজ শওকত আলী ও শরীয়তপুর-৩ আসনে মো. হানিফ মিয়া এবং শরীয়তপুর-২ আসন থেকে জাসদ (ইনু) এর প্রার্থী মো. ফিরোজ মিয়া (ফিরোজ শাহী) জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এ পর্যন্ত জাতীয়তাবাদী দলের পক্ষে কোন মনোনয়ন পত্র জমা পড়েনি।

ইকবাল হোসেন অপুর পক্ষে জেলাপরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক এমপি মাস্টার মজিবুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র আব্দুর রব মুন্সী, জেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল ফজল মাস্টার, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও শরীয়তপুর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়াল, শরীয়তপুর পৌরসভার প্রতিষ্ঠাকালিন চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্জ নুর মোহাম্মদ কোতোয়াল, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবুল হাসে মতপাদার, জাজিরা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোবারক আলী শিকদার, জেলা ও দায়রা জজ আদালতের জিপি এডভোকেট আলমগীর মুন্সী, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আলিম, জেলা যুবলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর মৃধা, সাধারণ সম্পাদক নুহুন মাদবর, ভেদরগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুল মান্নান হাওলাদার, শরীয়তপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ বাচ্চু বেপারী, জেলা আওয়ামীলীগ সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন তোতা মাঝি, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক মানিক ব্যানার্জী, সদর উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন দিপু মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন আলম, জেলা ছাত্রলীগ যুগ্ম আহবায়ক রাশেদুজ্জামান রাশেদ সহ দলীয় নেতাকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

মনোনয়ন জমা করে ইকবাল হোসেন অপু বলেন, মানবতার নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সারা বিশ্ব পরিচালনার দক্ষাতা ও ক্ষমতা রাখেন। তিনি একজন ন্যায় বিচারক। আমাকে শরীয়তপুর-১ আসনের জন্য দলীয় প্রার্থী মনোনীত করে আবাও তা প্রমান করলেন। আমি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ। শেখ হাসিনা আমার প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস রেখে আওয়ামীলীগ থেকে আমাকে মনোনীত করেছেন। আমি শতভাগ আশাবাদী শরীয়তপুর-১ আসনের বিজয় জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে পারবো। প্রধানমন্ত্রী দক্ষিন অঞ্চলের মানুষের জন্য যে উন্নয়ন করেছে এবার তার প্রতিদান দেবার পালা। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবারও প্রধান মন্ত্রী বানাবো। আমি পালং-জাজিরাবাসীকে সাথে নিয়ে নৌকার বিজয় ছিনিয়ে আনব।

আব্দুর রব মুন্সী বলেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণেই শরীয়তপুরের ৩ টি আসনেই যোগ্য প্রার্থীরাই আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন পেয়েছে এবং আসন্ন নির্বাচনে ৩ টি আসনেই আওয়ামী লীগের বিজয় আশা করছি। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে বলেন, দলীয় সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা শরীয়তপুরে যাঁদেরকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাদের বিজয়ী করতে একযোট হয়ে কাজ করবো। তাদেরকে বিজয়ী করে পুনরায় জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার গঠনে ভূমিকা রাখবে।শরীয়তপুরের ৩ টি আসনেই এবার যোগ্য প্রার্থীদের আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন দেয়ায় বরাবরের মতো ৩টি আসনেই আওয়ামী লীগের দখলে থাকবে।