দাবি ৬ দফা, সড়কে ভিকারুননিসার শিক্ষার্থীরা

0
18

রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী অরিত্রি অধিকারীর মৃত্যুর ঘটনায় বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা ৬ দফা দাবি জানিয়েছেন। বিক্ষোভের দ্বিতীয় দিন বুধবার (৫ ডিসেম্বর) শিক্ষার্থীরা প্রিন্সিপালের পদত্যাগের লিখিত আদেশ দেওয়াসহ ৬ দফা দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানান।

শিক্ষার্থীদের অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- অভিযুক্ত শিক্ষকদের আইন অনুযায়ী দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে, স্কুলে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন বন্ধ করতে হবে, কথায় কথায় টিসি দেওয়ার ভয় দেখানো যাবে না, মানসিক সুস্থতার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দিয়ে কাউন্সিলিং করাতে হবে, ভিকারুননিসার গভর্নিংবডির সব সদস্যকে অপসারণ করতে হবে।

বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, দাবি না মানলে তারা সড়ক ছেড়ে যাবেন না।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের বিক্ষোভের মুখে সকল ক্লাস ও পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্কুলটির সব শাখায় বন্ধ থাকবে পরীক্ষা ও ক্লাস। বুধবার (৫ ডিসেম্বর) ভিকারুননিসার গভর্নিং বডির শিক্ষক প্রতিনিধি মুশতারী সুলতানা সংবাদ সম্মেলনে জানান, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্কুলটির সব শাখায় বন্ধ থাকবে পরীক্ষা ও ক্লাস।

এ দিকে অরিত্রিকে ‘আত্মহত্যায় প্ররোচনা’ দিয়ে মৃত্যুর পথ বেছে নিতে বাধ্য করার অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং বডি প্রিন্সিপাল (ভারপ্রাপ্ত) নাজনীন ফেরদাউস, বেইলি রোড ক্যাম্পাসের প্রভাতী শাখার প্রধান জিনাত আক্তার ও শিক্ষক হাসনা হেনাকে বরখাস্ত করার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। তাদের এমপিও বাতিল করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রসঙ্গত, সোমবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে স্কুলে শিক্ষকদের সামনে বাবার অপমান সইতে না পেরে রাজধানীর শান্তিনগরের নিজ বাসায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি। মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।