হাতীবান্ধায় অপহরনের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

0
27

শাহিনুর ইসলাম প্রান্ত, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আকতার গোলাম কিবরিয়ার মেয়ে সিথি কিবরিয়াকে অপহরনের দায়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তফিউজ্জামান জুয়েলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

গতকাল ৪ জানুয়ারী শুক্রবার সকালে সিথি কিবরিয়ার মা মাসুদা আখতার বানু বাদী হয়ে হাতীবান্ধা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আজ ৫ জানুয়ারী শনিবার সকালে জহুরুল ইসলাম নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আলী আকতার গোলাম কিবরিয়া হাতীবান্ধা আলিমুদ্দিন সরকারী কলেজের অধ্যাপক ও তফিউজ্জামান জুয়েল নিলফামারী জেলার ডিমলা খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। সিথি কিবরিয়া ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের সমাজ কল্যাণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউট এর ৩য় বর্ষের ছাত্রী।

মামলা সুত্রে জানা যায়, সিথি কিবরিয়া তার সহপাঠীসহ ‘আমরাই পারি’ নামে একটি সংগঠনের অনুষ্ঠান শেষে গত বুধবার বিকেলে মাইক্রোবাস যোগে হাতীবান্ধা তিস্তা ব্যারাজ থেকে বাসায় ফিরছিলো। এমন সময় তফিউজ্জামান জুয়েলসহ কয়েকজন মাইক্রোবাসটি গতিরোধ করে সিথি কিবরিয়াকে অপহরন করেন। এ সময় সিথি কিবরিয়ার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে জুয়েল ও তার সহযোগীরা সিথিকে রেখে পালিয়ে যায়। মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে তফিউজ্জামান জুয়েল কিছুদিন পূর্বে সিথি কিবরিয়ার পরিবারকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু ওই প্রস্তাবে সিথির পরিবার রাজি হয়নি।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা তফিউজ্জামান জুয়েল বলেন, ঘটনার দিন আমি সকাল সন্ধ্যা সরকারী কাজে কর্মস্থলে ব্যাস্ত ছিলাম। সিথির পরিবারের সাথে আমার ঘনিষ্ঠতা রয়েছে। আমি ওই পরিবারের কাছে টাকা পাই। পাওনা টাকা চাওয়ার অপরাধে একটি নাটক সাজিয়ে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

তবে তফিউজ্জামান জুয়েলের ওইসব অভিযোগ মিথ্যাচার ও ভিত্তিহীন দাবি করে আইনের কাছে ন্যায় বিচার চেয়েছেন সিথি কিবরিয়ার পরিবার।

হাতীবান্ধা থানার অফিসার ইনচার্জ ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাইক্রোবাসের চালক জহুরুল হককে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুরো বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের পাশাপাশি অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।