রামমন্দির নিয়ে কংগ্রেসকে ভাবতে হবে না-স্মৃতি ইরানি

0
199

রামমন্দির নিয়ে কংগ্রেসকে ভাবতে হবে না। রাহুল গান্ধীর কেন্দ্র থেকে আক্রমণ স্মৃতি ইরানির। অযোধ্যার জমি নিয়ে মামলা এখন সুপ্রিম কোর্টে। আগামী শুনানি ১০ জানুয়ারি। কিন্তু মনে করা হচ্ছে, লোকসভা নির্বাচনের পরেও চলবে এই মামলা।

স্মৃতি ইরানি বলেন, “রামমন্দির নিয়ে কংগ্রেসের রাজনীতি করার কোনও প্রয়োজন নেই। এটা মানুষের বিশ্বাস। নেতা ও আইনজীবীরা এই নিয়ে আদালতে লড়ছেন।” রামমন্দির নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী কপিল সিব্বলকে পরোক্ষে আক্রমণ করেন স্মৃতি।

এদিকে রাহুল গান্ধীকে আক্রমণ করেন স্মৃতি। তিন রাজ্যে নির্বাচনের আগে বিভিন্ন সভায় রামমন্দির ইস্যু নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। সেটা নিয়েই আক্রমণ করেন স্মৃতি। এদিন রাহুল গান্ধীর লোকসভা কেন্দ্র আমেঠিতে গিয়েছিলেন স্মৃতি ইরানি। শুক্রবার সেখানে জনসভা ছিল রাহুল গান্ধীরও। বিধানসভা ভোটে তিন রাজ্যে জয়ের পর প্রথমবার নিজের কেন্দ্রে যাওয়ার কথা ছিল রাহুলের। শেষ মুহূর্তে যাত্রা স্থগিত করলেন রাহুল।

স্মৃতি ইরানি আছেন বলেই কি যাত্রাসূচি পরিবর্তন করলেন? কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ সঞ্জয় সিং শুধু বলেন, “এদিনের জন্য আসছেন না রাহুল। পরবর্তী কর্মসূচি জানানো হবে।” সেই নিয়েই এদিন আক্রমণ করেন স্মৃতি। তিনি বলেন, “আমেঠি ওর যুদ্ধক্ষেত্র। সেখানেই এত দেরি। নিজের কেন্দ্রে যে সময়ে পৌঁছতে পারে না, সে কীভাবে সময়ে মানুষের সমস্যার সুরাহা করবে!” পরে কংগ্রেস পক্ষ থেকে জানানো হয়, শুক্রবার সন্ধেবেলা ফুরসতগঞ্জে নামবেন রাহুল।

আমেঠিতে রাহুলের বিরুদ্ধে লোকসভা নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন স্মৃতি ইরানি। কিন্তু তাঁকে হারিয়ে জয়ী হন কংগ্রেস সভাপতি। এখনও পর্যন্ত খবর, শনিবার কেন্দ্রের মানুষের সঙ্গে দেখা করবেন রাহুল। বিভিন্ন এলাকায় জনসমাবেশ করবেন।

পপরেশদেপুর, নাসিরাবাদ, পারাইয়া নামাকার ও গৌরীগঞ্জ এলাকা পরিদর্শন করবেন। শনিবার মুসাফিরখানা তেহসিল, জগদীশপুর, তিলোয়ি এলাকায় যাবেন। প্রয়াত কংগ্রেস নেতা শিবপ্রতাপ সিংয়ের পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি।

এদিকে রাঘব সেবা সংস্থানের পক্ষ থেকে একটি অনুষ্ঠানে যাবেন স্মৃতি ইরানি। সেখানে গরীবদের কম্বল বিতরণ, আর্থিক সহায়তা করবেন। একটি স্কুলের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।