বিপিএলের প্রথম দিনেই বিধ্বস্ত রাজশাহী

0
68

বিপিএলের (বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ) প্রথম দিনের দুই ম্যাচে অঙ্কিত হলো দুই রকম চিত্র। প্রথম ম্যাচে ফেভারিট রংপুর রাইডার্সকে হারিয়ে দিয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। তবে হারার আগে রংপুর প্রমাণ করেছে তাদের লড়াকু মানসিকতা। অল্প পুঁজি নিয়েও লড়াই করেছে সমানে সমানে। দ্বিতীয় ম্যাচে লড়াইয়ের ছিটে ফোটাও হয়নি। ফেভারিট ঢাকা ডায়নামাইটসের দাপটের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে রাজশাহী কিংস।

রাজশাহীকে বিধ্বস্ত করে ঢাকা জিতেছে ৮৩ রানের বিশাল ব্যবধানে। ঢাকার করা ৫ উইকেটে ১৮৯ রানের জবাবে রাজশাহী মাত্র ১০৬ রানে অলআউট। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং-দ্বিতীয় ম্যাচটিতে তিন বিভাগেই স্পষ্ট ছিল ঢাকার দাপট। তাদের সেই দাপটের সামনে রাজশাহী কোমর সোজা করে দাঁড়াতেই পারেনি। পুরো ম্যাচে রাজশাহীর একমাত্র হাসির উপলক্ষ্য ছিল টস জয়।

প্রতিপক্ষের আমন্ত্রণে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ঝড় তোলেন ঢাকার দুই ওপেনার হযরতউল্লাহ জাজাই ও সুনিল নারাইন। দুজনে ওপেনিং জুটিতেই তুলে ফেলেন ১১৬ রান। সেটিও মাত্র ১০.৪ ওভারে। শুরুর এই ঝড়ের কারণেই মাঝে উইাকেট পতনের ঝড় সত্ত্বেও ১৮৯ রানের বড় পুঁজি পায় ঢাকা।

যার পেছনে সবচেয়ে বড় অবদান আফগান ওপেনার হযরতউল্লাহর। তিনি মাত্র ৪১ বলে করেন ৭৮ রান। ইনিংসটি সাজাতে ৪টি চারের মারের পাশাপাশি ৭টি ছক্কা হাঁকান তিনি। এছাড়া নারাইন করেছেন ২৮ বলে ৩৭ রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজেরই আরেক হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান আন্দ্রে রাসেল করেন ১৯ বলে ২১। শুরুতে যেমন হযরতউল্লাহ, শেষে ঠিক সেরকমই ঝড় তুলেছিলেন শুভাগত হোম। তিনি মাত্র ১৪ বলে খেলেছেন ৩৮ রানের অপরাজিত ইনিংস।

১৯০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বলতে গেলে শুরুতেই পথ হারিয়ে ফেলে রাজশাহী। ২৪ রানে প্রথম উইকেট পতনের পর আর প্রতিরোধই গড়তে পারেনি। জয় স্বপ্ন আগেই শেষ হয়ে যাওয়া রাজশাহী এক পর্যায়ে ৮০ রানে হারায় ৯ উইকেট। এরপর আরাফাত সানি ও মোস্তাফিজুর রহমান জুটি বেঁধে দলকে ১০৬ পর্যন্ত নিয়ে গেছেন।

রাজশাহীর পক্ষে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি ২৯ রানের। যেটি খেলেছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটার মোহাম্মদ হাফিজ। এছাড়া দুই অঙ্ক ছুঁয়েছেন আর মাত্র তিনজন, আরাফাত সানি ১৮, মোস্তাফিজ অপরাজিত ১১ ও এভান্স করেছেন ১০ রান।

ঢাকার পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নিয়েছেন রুবেল হোসেন। মহর শেখ নিয়েছেন ২টি। এছাড়া অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, আন্দ্রে রাসেল, শুভাগত হোম ও কাইরন পোলার্ড নিয়েছেন একটি করে উইকেট। ব্যাট হাতে ঝড় তোলার সুবাদে ম্যাচসেরার পুরস্কারটি পেয়েছেন আফগানিস্তানের হযরতউল্লাহ জাজাই।