সংরক্ষিত মহিলা আসনে তৃতীয় লিঙ্গের ৮ প্রার্থীর মনোনয়ন সংগ্রহ!

0
204

রাজনীতির দরজা খুলল তৃতীয় লিঙ্গের জন্য। নতুন সরকারে সংরক্ষিত আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নিচ্ছেন ৮ জন রূপান্তরিত নারী। সরকার গঠনের পর, সংরক্ষিত মহিলা আসনগুলির জনপ্রতিনিধি প্রতিদ্বন্দ্বিতার মাধ্যমে বেছে নেবে আওয়ামি লিগ। অন্তত ৫০টি আসনে এর মাধ্যমেই ঠিক হবেন সংসদ সদস্য। বুধবার থেকে সেই প্রক্রিয়া শুরু হল।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কেন্দ্র ধানমণ্ডিতে আওয়ামি লিগের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র নিলেন আবেদনকারীরা। অন্যান্যদের সঙ্গে লাইনে দাঁড়িয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেন তৃতীয় লিঙ্গের ৮ প্রতিনিধি। এর আগে এই প্রার্থীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেন। সংসদে তাঁদের অংশগ্রহণের প্রয়োজনীয়তা ব্যাখ্যা করেন। আবেদন করেন, যাতে তাঁরাও সংসদে যাওয়ার সমান সুযোগ পান, সেই ব্যবস্থা করতে।

রূপান্তরিত নারী ময়ূরীর কথায়, ‘আমরা এ দেশের নাগরিক। সবকিছুতে আমাদের সমান অধিকার। সেই দাবি তুলে ধরতেই সংসদ সদস্য হওয়ার প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়েছি, মনোনয়ন তুলেছি। সংসদে আমাদের সমস্যার কথা এবং প্রয়োজনীয়তা নিয়ে বলার লোক নেই।


এই জন্য তৃতীয় লিঙ্গের কোনও প্রতিনিধিকে সংসদে পাঠানো দরকার বলে মনে করি।` তাঁদের এই আবেদনে সাড়া দিয়েই এবার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকে। ৩০ ডিসেম্বর বিপুল জনসমর্থন নিয়ে ফের বাংলাদেশের ক্ষমতায় এসেছে আওয়ামি লিগ। একাদশ জাতীয় সংসদে প্রাপ্ত ২৫৭ আসনের বিপরীতে একক দল হিসেবে ৪৩টি আসনে মনোনয়ন দিতে পারবে আওয়ামি লিগ।

সংরক্ষিত মহিলা আসনে সাংসদ হতে আগামী ১৮ জানুয়ারির মধ্যে মনোনয়নপত্র পূরণ করে জমা দিতে হবে। একমাসের মধ্যে অর্থাৎ ১৭ ফেব্রুয়ারি নাগাদ সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচনের ঘোষণার করতে পারে নির্বাচন কমিশন। সব ঠিকঠাক হলে, বাংলাদেশের সংসদে প্রথমবার অংশ নিচ্ছেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রতিনিধিরা।