গোসাইরহাটে পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে ৫ জন আটক

0
31

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ শরিয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজির সময় ৫ জন ভূয়া পুলিশ আটক করা হয়েছে। রোববার (৩ ফেব্রুয়ারী) ভোরে গোসাইরহাট উপজেরার পট্টি ব্রীজের ওপর থেকে ভূয়া পুলিশদের আটক করে গোসাইরহাট থানা পুলিশ।

আটককৃত পাঁচ ভূয়া পুলিশ হলেন, গোসাইরহাট উপজেলার মৃতসেনপট্টি গ্রামের আমিন উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ আলী (৩৮), মৃত রশিদ সরদারের ছেলে সেলিম সরদার (৩৫), দাসেরজঙ্গল গ্রামের আজিজ সরদারের ছেলে জামাল সরদার (৩৫), মহেশপট্টি গ্রামের মিয়াচান রাড়ীর ছেলে মিন্টু রাড়ী (৩৫) ও টেংরা গ্রামের সফিউদ্দিন মোল্যার ছেলে শরীফ মোল্যা (৩০)।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, ৩ ফেব্রুরী রোববার (আজ) ভোরে গোসাইরহাট পট্টি ব্রীজের ওপর দিয়ে গোসাইরহাট ইউনিয়নের সামছুল হক প্রধানীয়ার ছেলে ইদ্রিস প্রধানীয়া মাছের গাড়ী নিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ পরিচয়ে উদ্রিসের গাড়ি থামায়।

একপর্যায়ে উদ্রিসকে আটক করে পুলিশ পরিচয় দিয়ে তার কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা দাবী করে। টাকা দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হবে। পুলিশ পরিচয়ে মাছের গাড়ী থেকে চাঁদাবাজির খবর পেযে গোসাইরহাট থানা পুলিশ গিয়ে ভূয়া পুলিশ পরিচয়দানকারী ৫ জন চাঁদাবাজকে আটক করে।

গোসাইরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিম রেজা বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বিভিন্ন এলাকায় ভূয়া পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি করে আসছিল এরা।

রোববার ভোরে পট্টি ব্রীজের ওপর দিয়ে মাছের গাড়ী যাওয়ার সময় পুলিশ পরিচয়ে ৫ জন চাঁদাবজি করছিলেন। খবর পেয়ে থানা থেকে পুলিশ গিয়ে তাদের আটক করে। মামলা দিয়ে আসামীদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।